অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই মহররম, ১৪৪০ হিজরী

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী আবুল হোসেন

Print

স্টাফ রিপোর্টার : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজবাড়ী -২ আসনে জাতীয় পার্টির সম্ভাব্য প্রার্থী হচ্ছেন আবুল হোসেন। ইতিপূর্বে গন সংযোগ,শোভাযাত্রা ও জনসভার মধ্যদিয়ে এলাকায় ব্যাপক পরিচিতি পেয়েছেন জাপার এই নেতা।
রাজবাড়ীর কালুখালীর উপজেলার কৃতি সন্তান আবুল হোসেন আশির দশকে জাপার প্রেসিডেন্ট হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদের হাত ধরে দলে যোগদান করেন। ৯০ সালে এরশাদ সরকারের শাসনামল শেষ হলেও দলকে শক্তহাতে ধরে রেখেছিলেন আবুল হোসেন। তার তৎপরতায় পাংশা,কালুখালী ও বালিয়াকান্দিতে জাতীয় পার্টি বেশ শক্তিশালী হয়ে ওঠে। ১৯৯৬ এর নির্বাচনে রাজবাড়ী ২ আসনে আওয়ামীলীগের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলো জাতীয় পার্টি । এরপর নিয়মিত কর্র্মীসভা,উঠান বৈঠক,চা চক্র,সমাবেশ ও শোভাযাত্রার মধ্যদিয়ে জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী করে গড়ে তোলে আবুল হোসেন। এভাবেই জাপা নেতাকর্মীদের জনপ্রিয় নেতা হিসেবে পরিচিতি পায় আবুল। প্রতিদিনই কোথাও না কোথাও গনসংযোগ কিংবা মিটিং নিয়ে ব্যস্ত থাকেন তিনি।
রাজবাড়ী-২ আসন পাংশা,বালিয়াকান্দি ও কালুখালী উপজেলা নিয়ে গঠিত। ৩১ টি ইউনিয়ন ও ১ টি পৌরসভা নিয়ে গঠিত আসনটি গঠিত। এই আসনের অধিকাংশ মানুষ গ্রামে বাস করে। এসব মানুষের অধিকাংশ এরশাদ পাগল। ৮৬ সালে জাতীয় পার্টির প্রার্থী হিসেবে নাজির হোসেন নিলু চৌধুরী এ আসন থেকে নির্বাচিত হন। এবার জাতীয় পার্টি পুরনো সেই আসন আবার পুনরুদ্ধার করতে চায়। আর সে লক্ষেই স্থানীয় জাপা নেতারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলের ত্যাগী নেতা হিসেবে আবুল হোসেন কে প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিতে হবে।
জাপার ত্যাগী নেতা আবুল হোসেন জানান,স্থানীয় নেতাকর্মীদের দাবী কারনে প্রার্থী হবার আগ্রহ প্রকাশ করেছি। দল থেকে আমাকে মনোনয়ন দিলে আসনটি পুনরুদ্ধার হবে।




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.