অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই সফর, ১৪৪২ হিজরী

ওসি প্রদীপসহ ৩ জনের ৭ দিনের রিমান্ড

Print

স্টাফ রিপোর্টার : পুলিশের গুলিতে মৃত্যুবরণ করা সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহার ঘটনায় টেকনাফ থানায় ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও টেকনাফ বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের আইসি পুলিশ পরিদর্শক মো. লিয়াকতসহ তিন আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত।

আজ রাত ৮টার দিকে সিনহা হত্যা মামলায় র‍্যাবের করা রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন কক্সবাজার আদালত। ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করা হলেও আদালত ৩ জনের ৭ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন। বাকি ৪ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের আদেশ দেয়া হয়।

এদিকে আদালতে উপস্থিত হয়ে আসামিরা আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে তা নাকচ করে দেন আদালত। পরে তাদের জেলখানায় পাঠানো হয়। এদিকে মামলার দুই আসামি এসআই টুটুল ও কনস্টেবল মো. মোস্তফা পলাতক আছে। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

আজ দুপুরে চট্টগ্রাম বিভাগীয় পুলিশ লাইন্স হাসপাতাল থেকে ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে পুলিশি হেফাজতে নেয়া হয়। চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুবর রহমান জানান, প্রদীপ চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে এসেছিল। তাকে বিশেষ নিরাপত্তায় কক্সবাজার আদালতে পাঠানো হবে। সেখানে তিনি আত্মসমর্পণ করবেন।

উল্লেখ্য, ৩১ আগস্ট (শুক্রবার) রাত ১০টার দিকে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

এ ঘটনায় গত বুধবার কক্সবাজারের টেকনাফ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তামান্না ফারাহ এর আদালতে ৯ জনকে আসামি করে মামলা করেন নিহতের বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস। এ ঘটনায় ৯ পুলিশ সদস্যসহ ১৭ জনকে প্রত্যাহার করেছে পুলিশ বিভাগ।

অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য হলেন, এসআই দুলাল রক্ষিত, কনস্টেবল সাফানুর করিম, কামাল হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন এবং এএসআই লিটন মিয়া।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: