অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২৩শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৫ই জিলক্বদ, ১৪৪১ হিজরী

‘খালেদা জামায়াতের আমির, উপ-আমির গয়েশ্বর’

Print

দৈনিক চিত্র রিপোর্ট : রাজশাহীর আহমদিয়া মসজিদে বোমা হামলার সঙ্গে জামায়াত জড়িত বলে মন্তব্য করেছেন নৌ-পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। তিনি বলেন, জামায়াতের নেতারা সব কারাগারে। বাইরে আছেন তাদের অঘোষিত আমির খালেদা জিয়া ও উপ-আমির গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। আর তাদের নেতৃত্বেই রাজশাহীর বাগমারার মসজিদে বোমা হামলা হয়েছে। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার কমিটি’ আয়োজিত মসজিদে বোমা হামলার প্রতিবাদে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
সমাবেশ শেষে হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে সংগঠনটি।
শাজাহান খান বলেন, খালেদা জিয়া দুই-দুইবার সরকার পরিচালনা করেছেন। তার সরকারের সময় কেবল জঙ্গিবাদের উত্থান ও অবৈধ অস্ত্রেরই আমদানি হয়নি, ওই সরকার অস্ত্রের ওপর দাঁড়িয়ে ছিল। তারা অস্ত্র আর পেশিশক্তির ওপর রাজনীতি করে। তাই এ সব জঙ্গি হামলার পেছনে তাদেরই হাত রয়েছে।

নৌমন্ত্রী বলেন, ১৯৫৪ সালে জামায়াত প্রতিষ্ঠা করেছিলেন পাকিস্তানের সাইয়েদ আবুল আলা মওদুদী। তার বিরুদ্ধে তিনশ’ আহমদিয়াকে হত্যার অভিযোগ আছে। এজন্য ১৯৫৬ সালের বিচারে মওদুদীর ফাঁসির হুকুমও হয়েছিল। পরবর্তী সময়ে তিনি সরকারের কাছে ক্ষমা চেয়ে মুক্তি পান। তারই ধারাবাহিকতায় কাদিয়ানি-শিয়া-আহমদিয়াদের বিরুদ্ধে আজও তাণ্ডব হচ্ছে। তাই এসবের মূলে রয়েছে জামায়াত।

এ সময় সংক্ষিপ্ত সমাবেশ থেকে কর্মসূচি ঘোষণা করেন তিনি। কর্মসূচিগুলো হলো, নিজামীসহ সব মানবতাবিরোধী অপরাধী ও যুদ্ধাপরাধীর ফাঁসির দাবিতে আগামী ৩ জানুয়ারি মতিঝিলের শাপলা চত্বরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও ৬ জানুয়ারি সকাল সাড়ে ৯টা থেকে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে।

আন্তর্জাতিক যুদ্ধাপরাধ গণবিচার এর সভাপতি ইসমত কাদির গামার সভাপতিত্বে সমাবেশ আরও বক্তব্য দেন সংগঠনের যুগ্ম-মহাসচিব কালি নারায়ণ লোথ, সদস্য সচিব অঞ্জন রায়, কাবিরুল ইসলাম প্রমুখ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.