অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৭ই রমযান, ১৪৪০ হিজরী

চতুর্থ ধাপের উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থিতায়ও পুরানাদের ওপর আস্থা

Print

দৈনিক চিত্র প্রতিবেদক:
আগামী ৩১ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য চতুর্থ ধাপের ১২২ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনেও পুরানাদের ওপর আস্থা রেখেছে আওয়ামী লীগ। শুক্রবার বিকালে গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে একক চেয়ারম্যান প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জানা গেছে, এত তৃতীয়াংশই পুরনাদের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার রাতেই প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে চতুর্থ ধাপের একক চেয়ারম্যান প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ। তবে আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এসব উপজেলায়ও ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদের প্রার্থিতা উন্মুক্ত রেখেছে ক্ষমতাসীন এ দলটি।
নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী চতুর্থ ধাপে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ৪ মার্চ, মনোনয়নপত্র বাছাই হবে ৬ মার্চ, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ দিন ১৩ মার্চ এবং ভোট গ্রহণ হবে ৩১ মার্চ। এই ধাপে ১৬ জেলার ১২২টি উপজেলায় ভোট হবে। গতকাল মনোনয়ন বোর্ডের বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহ, ফারুক খান, ড. আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চতুর্থ ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেলেন যারা:

পিরোজপুর সদরে মোঃ মজিবুর রহমান, ভান্ডারিয়ায় মোঃ মিরাজুল ইসলাম, কাউখালীতে কাজী রুহিয়া বেগম, ইন্দুরকানিতে এম মতিউর রহমান, মঠবাড়িয়ায় হোসাইন মোসারেফ সাকু, নেছারাবাদে এস এম মুইদুল ইসলাম, নাজিরপুরে অমূল্য রঞ্জন হালদার, যশোর সদরে মো. শাহীন চাকলাদার, ঝিকরগাছায় মোহাম্মদ আলী, চৌগাছায় মো.মোস্তানিছুর রহমান, বাঘারপাড়ায় মো. হাসান আলী, অভয়নগরে শাহ ফরিদ জাহাঙ্গীর, মনিরামপুরে নাজমা খানম, কেশবপুরে এইচ এম আমির হোসেন, শার্শায় সিরাজুল হক, খুলনার রুপসায় মো. কামাল উদ্দিন, তেরখাদায় মো. সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু, দিঘলিয়ায় খান নজরুল ইসলাম, বটিয়াঘাটায় মো. আশরাফুল আলম খান, দাকোপে এস এম আবুল হোসেন, পাইকগাছায় গাজী মোহাম্মদ আলী, কয়রায় জিএম মোহসিন রেজা, ডুমুরিয়ায় মো. মোস্তফা সরোয়ার, ফুলতলায় শেখ আকরাম হোসেন, বাগেরহাটের রামপালে শেখ মোয়াজ্জেম হোসেন, মোল্লাহাটে শাহীনুল আলম ছানা, চিতলমারীতে অশোক কুমার বড়াল, বাগেরহাট সদরে সরদার নাসির উদ্দিন, কচুয়ায় এস এম মাহাফুজুর রহমান, ফকিরহাটে ¯^পন কুমার দাশ, মোংলায় আবু তাহের হাওলাদার, মোড়েলগঞ্জে মো. শাহ-ই-আলম বাচ্চু, শরণখোলায় কামাল উদ্দিন আকন, পটুয়াখালী সদরে মো. গোলাম সরোয়ার, মির্জাগঞ্জে গাজী আতহার উদ্দিন আহম্মেদ, দুমকীতে হারুন-অর-রশীদ হাওলাদার, দশমিনায় মো. আব্দুল আজীজ, গলাচিপায় মুহম্মদ সাহিন, কলাপাড়ায় এসএম রাকিবুল আহসান, ভোলা সদরে মো. মোশারফ হোসেন, দৌলতখানে মনজুর আলম খান, লালমোহনে গিয়াস উদ্দিন আহমেদ, তজুমদ্দিনে মো. ফজলুল হক, চরফ্যাশনে মো. জয়নাল আবেদীন, মনপুরায় শেলিনা আকতার, বরগুনা সদরে শাহমোহাম্মদ ওয়ালি উল্লাহ, আমতলীতে জি এম দেলোয়ার, বেতাগীতে মো. মাকসুদুর রহমান (ফোরকান), বামনায় মো. সাইতুল ইসলাম লিটু, পাথরঘাটায় মো. আলমগীর হোসেন, টাঙ্গাইলের ধনবাড়ীতে মো. হারুনার রশিদ, মধুপুরে মো. ছরোয়ার আলম খান আবু, গোপালপুরে মো. ইউনুস ইসলাম তালুকদার, ভুঞাপুরে মো. আব্দুল হালিম, ঘাটাইলে মো. শহিদুল ইসলাম লেবু, কালিহাতীতে মো. মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, টাঙ্গাইল সদরে শাহ জাহান আনছারী, দেলদুয়ারে মো. ফজলুল হক, নাগরপুরে মো. কুদরত আলী, মির্জাপুরে মীর এনায়েত হোসেন মন্টু, বাসাইলে মো. মতিয়ার রহমান, সখিপুরে জুলফিকার হায়দার কামাল, ঢাকা জেলার নবাবগঞ্জে আব্দুল বাতেন মিয়া, দোহারে মো. আলমগীর হোসেন, কেরানীগঞ্জে শাহীন আহমেদ, ধামরাইয়ে অধ্যঅপক মো. মিজানুর রহমান মিজান, সাভারে মঞ্জুরুল আলম রাজিব, মুন্সিগঞ্জ সদরে আনিছউজ্জামান, টঙ্গিবাড়ীতে ইঞ্জিনিয়ার কাজী আবদুর ওয়াহিদ, লৌহজংয়ে মো. ওসমান গনী তালুকদার, শ্রীনগরে মো. তোফাজ্জল হোসেন, সিরাজদিখানে মহিউদ্দিন আহমেদ, গজারিয়ায় আমিরুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মো. মোশারফ হোসেন, আড়াইহাজারে মুজাহিদুর রহমান হেলো সরকার, রূপগঞ্জে মো. শাহজাহান ভূঁইয়া, ময়মনসিংহের হালুয়াঘাটে মাহমুদুল হক সায়েম, ধোবাউড়ায় প্রিয়তোষ চন্দ্র বিশ্বাস, ফুলপুরে মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান, গৌরীপুরে বিধুভূষণ দাস, ময়মনসিংহ সদরে আশরাফ হোসাইন, মুক্তাগাছায় মো. বিল্লাল হোসেন সরকার, ফুলবাড়িয়ায় মো. আব্দুল মালেক সরকার, ত্রিশালে মো. ইকবাল হুসেইন, ইশ্বরগঞ্জে মাহমুদ হাসান সুমন, নান্দাইলে আব্দুল মালেক চৌঘুরী, ভালুকায় মো. গোলাম মোস্তফা, ব্রা²ণবাড়িয়া সদরেমো. জাহাঙ্গীর আলম, সরাইলেমো. শফিকুর রহমান, নাসিরনগরে রাফি উদ্দিন আহম্মদ, আখাউড়ায় আবুল কাশেম ভূঁইয়া, আশুগঞ্জে মো. হানিফ মুন্সী, নবীনগরে কাজী জহির উদ্দিন সিদ্দিক, কসবায় মো. রাশেদুল কাওসার ভূঁইয়া, ফেনী সদরে আব্দুর রহমান, দাগনভূঁঞায় মো. দিদারুল কবির, ফুলগাজীতে মো. আব্দুল আলিম, সোনাগাজীতে জহির উদ্দিন মাহমুদ, ছাগলনাইয়ায় মেজবাউল হায়দার চৌধুরী, পরশুরামপুরে কামাল উদ্দিন, কুমিল্লার চান্দিনায় তপন বকসী, মেঘনায় মো. সাইফুল্লাহ মিয়া রতন শিকদার, হোমনায় রেহানা বেগম, মুরাদনগরে আহসানুল আলম কিশোর, লাকসামে মো. ইউনুছ ভূঁইয়া, দেবিদ্বারে মো. জয়নুল আবেদীন, তিতাসে মো. শাহিনুল ইসলাম, বুড়িচংয়ে আবুল হাসেম খান, নাঙ্গলকোটে মো. সামছুউদ্দিন, চৌদ্দগ্রামে আব্দুস ছোবহান ভূঁইয়া, মনোহরগঞ্জেমোহাম্মদ জাকির হোসেন, ব্রাক্ষণপাড়ায় মো. জাহাঙ্গীর খান চৌধুরী, বরুড়ায় এ এন এম মইনুল ইসলাম আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.