অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১০ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ১৩ই মহররম, ১৪৪০ হিজরী

নেপালে বাংলাদেশি বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ৫০

Print

অনলাইন ডেস্ক : নেপালের রাজধানী কাঠমাণ্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বাংলাদেশি বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে কমপক্ষে ৫০ জন নিহত হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। গতকাল ঢাকা থেকে ৭১ জন আরোহী নিয়ে বিমানটি রানওয়েতে অবতরণ করার পরপরই আগুন ধরে এই দুর্ঘটনা ঘটে।
নেপালের পুলিশ বিবিসিকে জানিয়েছে, ৩১ জন ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। আরো ৯ জন পরে হাসপাতালে মারা গেছেন। এখনো আটজন নিখোঁজ রয়েছে। বাকিদের হাসপাতালে চিকিৎসা করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে অনেকের অবস্থাই গুরুতর। বেঁচে যাওয়া যাত্রীদের একজন নেপালের একটি সংবাদপত্রকে বলেছেন, বিধ্বস্ত বিমানটির জানালা দিয়ে তিনি বের হয়ে আসেন। এবং তিনি নিজেকে ভাগ্যবান বলে মনে করছেন। দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে এখনো কিছু জানা যায়নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করছেন।
বার্তা সংস্থা এএফপি বলেছে, কমপক্ষে ৪০ জন নিহত হয়েছে। নেপালের সেনাবাহিনীর মুখপাত্র গোকুল ভাণ্ডারি এএফপিকে বলেন, কাউকে জীবিত উদ্ধার করার আশা প্রায় শেষ। কারণ উড়োজাহাজটি ভয়াবহভাবে পুড়ে গেছে। কোনো বার্তা সংস্থাই তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানাতে পারেনি।
এএফপি জানিয়েছে, হতাহতদের উদ্ধারে কাজ চলছে। বিমানের ধ্বংসাবশেষ থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উড়োজাহাজে ৩২ জন আরোহী ঘটনাস্থলেই মারা যান। উড়োজাহাজটিতে ৬৭ জন যাত্রী ও ৪ জন ক্রু ছিলেন।
ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের বরাত দিয়ে কাঠমান্ডুর একজন সাংবাদিক বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ২২ জনকে আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের জনসংযোগ কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, ৭১ জন আরোহীর মধ্যে ৬৭ জন যাত্রী রয়েছেন। নেপাল সিভিল অ্যাভিয়েশন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম কাঠমাণ্ডু পোস্ট-এর বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়, ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক এয়ারপোর্টের রানওয়ের পূর্ব পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।
নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের যুগ্মসচিব সুরেশ আচার্য জানিয়েছেন, এরইমধ্যে ১৭ জনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। ঢাকার শাহজালাল বিমানবান্দর থেকে দুপুর সাড়ে বারোটায় কাঠমাণ্ডুর উদ্দেশ্যে উড়ে যাওয়া বিমানটিতে যাত্রী ছিলেন ৬৭ জন। এয়ারপোর্টের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুর জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় দুপুর ২:২০ মিনিটে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ এবং নেপাল সেনাবাহিনীর তরফ থেকে ঘটনাস্থলে উদ্ধার তৎপরতা চালানো হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক
নেপালের কাঠমান্ডুতে বেসরকারি বিমান ইউএস বাংলার উড়োজাহাজ বিধ্বস্ত হয়ে হতাহতের ঘটনায় গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে পাঠানো এক শোকবার্তায় একথা জানানো হয়। শোকবার্তায় বলা হয়- প্রধানমন্ত্রী নিহতদের আত্মার মাগফিরাত ও শান্তি কামনা করেছেন। তিনি আহতদের দ্রæত সুস্থতা কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জানান।

ভাগ্যক্রমে বেঁচে এসেছি : জানালার পাশেই ছিল আমার আসন। কাচ ভেঙে আমি বেরিয়ে আসি।’ নেপালে বিধ্বস্ত ইউএস বাংলার এক নেপালি যাত্রী জানিয়েছেন একথা। উড়োজাহাজে থাকা ওই যাত্রীর বরাত দিয়ে কাঠমান্ডু পোস্টের খবরে বলা হয়েছে, যাত্রীদের মধ্যে ১৬ জন নেপালি। বহোরা নামে ওই যাত্রী জানান, তিনিসহ ১৬ জন নেপালের বিভিন্ন ট্রাভেল সংস্থার হয়ে বাংলাদেশে প্রশিক্ষণ নিতে গিয়েছিলেন।
বহোরা জানান, ঢাকা থেকে উড়োজাহাজটি উড্ডয়নের সময় স্বাভাবিক ছিল। কিন্তু কাঠমান্ডুতে অবতরণের সময় এটি অস্বাভাবিক আচরণ শুরু করে। মুহূর্তের মধ্যে উড়োজাহাজটি ঝাঁকুনি খেতে থাকে এবং এর পরপরই বিকট শব্দ হয়। তিনি বলেন, আমার আসনটি জানালার কাছে ছিল এবং আমি জানালার কাচ ভেঙে বাইরে বেরিয়ে আসতে সক্ষম হই। ওই যাত্রী এখন স্থানীয় থাপাথালিভিত্তিক নরভিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
তিনি আরো বলেন, উড়োজাহাজটি থেকে বেরিয়ে আসার পর আমি আর কিছু মনে করতে পারি না। কেউ একজন আমাকে সিনামঙ্গল হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং সেখান থেকে আমার বন্ধুরা নরভিক হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তিনি জানান, তার মাথায় ও পায়ে আঘাত লেগেছে। ভাগ্যক্রমে তিনি বেঁচে গেছেন।
বিধ্বস্ত বিমান থেকে ২১ জনকে জীবিত উদ্ধার : নেপালের ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানটি থেকে ২১ জনকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কাঠমাÐুতে অবস্থানরত বাংলাদেশ বিমানের স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ সেলিম। উদ্ধারকৃতদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানান সেলিম।
ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে ৭৮ আসনের বিমানটিতে ৬৭ জন যাত্রী এবং ৪ জন ক্রু মেম্বার ছিলেন। ত্রিভুবন বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এদের মধ্যে ৩৭ জন পুরুষ, ২৭ জন নারীর সঙ্গে ছিল দুই শিশুও। বিমানবন্দরের মুখপাত্র প্রেম নাথ ঠাকুরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, ৭৮ আসনের বোম্বার্ডিয়ার ড্যাশ ৮ কিউ-৪০০ মডেলের উড়োজাহাজটি স্থানীয় সময় ২:২০ মিনিটে বিধ্বস্ত হয়। এসটু-এইউজি নামে নিবন্ধিত ফ্লাইটটি ঢাকা ছেড়েছিলো দুপুর ১:৪৩ মিনিটে। দুর্ঘটনার পরপরই বিমানবন্দরটিতে সবধরনের উড়োজাহাজের ওঠা-নামা বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।
বিমানযাত্রীদের তথ্য পেতে নেপালে বাংলাদেশ দূতাবাসে হট লাইন চালু : নেপালে ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত ঘটনায় তথ্য পেতে হট লাইন চালু করেছে নেপালের বাংলাদেশ দূতাবাস। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই তথ্য দেন। ফোন নাম্বার দুটি হলো +৯৭৭৯৮১০১০০৪০১, +৯৭৭৯৮৬১৪৬৭৪২২। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম জানান, দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা হাসপাতাল ও বিমানবন্দরে আছেন।
যেভাবে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রানওয়ের পাশে আছড়ে পড়ে বিমান : নেপালের কাঠমাণ্ডুতে বাংলাদেশি এয়ারলাইন ইউএস-বাংলার বিধ্বস্ত বিমানটির দুর্ঘটনায় পড়ার কারণ জানা গেছে। নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথোরিটি জানিয়েছে, দিক ভুল করে রানওয়েতে ল্যান্ড করার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনায় পড়ে বিমানটি। নেপালের সিভিল এভিয়েশন অথোরিটির মহাপরিচালক সঞ্জিব গৌতম এ ব্যাপারে কাঠমাণ্ডু পোস্টকে জানান, বিমানটিকে নির্দেশনা দেওয়া ছিলো কোটেশ্বরের ওপর দিয়ে রানওয়ের দক্ষিণ দিক থেকে নামার জন্য। কিন্তু এটি উত্তর দিক থেকে নামার সময় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আছড়ে পড়ে। তিনি আরো জানান, আমরা ধারণা করছি কোনো একটি যান্ত্রিক গোলযোগের জন্য এমনটা হয়েছে। এই অদ্ভুত অবতরণের রহস্য উদঘাটনে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।
পরিচয় মিলেছে ইউএস-বাংলার দুই যাত্রীর : নেপালের কাঠমাণ্ডুতে ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানটির দুজন যাত্রীর পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন পরিকল্পনা কমিশনের সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের উম্মে সালমা ও নাজিয়া আফরিন চৌধুরী।
ত্রিভুবন বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা, উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে নেপালের সেনাবাহিনী : নেপালের কাঠমাÐুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত ইউএস বাংলা এয়ার লাইন্সের ৭৮ আসনের বিমানটিতে যাত্রী ছিলেন ৬৭ জন, জানিয়েছে রয়টার্স। এরই মধ্যে ত্রিভুবন বিমানবন্দর বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। উদ্ধার কাজ চালাচ্ছে নেপালের সেনাবাহিনী ও ফায়ার সার্ভিস।
আজ কাঠমাণ্ডু যাবে সিভিল এভিয়েশনের তদন্ত কমিটি : নেপালের কাঠমাণ্ডুতে ইউএস বাংলার বিমান বিধ্বস্ত হওয়ায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে সিভিল এভিয়েশন। আজ কাঠমাণ্ডুতে পৌঁছবে সিভিল এভিয়েশনের তদন্ত কমিটি।
যেসব তথ্য জানালেন স্টেশন ম্যানেজার : নেপালে বিমান দুর্ঘটনার বিষয়ে সেখানে কর্মরত স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ সেলিম জানিয়েছেন, নেপালের কাঠমাণ্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস বাংলা এয়ার লাইন্সের বিধ্বস্ত হওয়ার ফলে বন্ধ হয়ে যায় বিমান চলাচল। কি কারণে বিমান বিধ্বস্ত হয়েছে সে সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যতদূর জানা গেছে বিধ্বস্তের আগে কন্ট্রোল টাওয়ারের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। তবে ঠিক কি কারণে বিমান বিধ্বস্ত হলো তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা সম্ভব হয়নি। প্রতি সপ্তাহে নেপালে বাংলাদেশ বিমানের ৪টি এবং ইউএস বাংলার ৪টি বিমান আসা যাওয়া যাওয়া করে। নেপালের প্রধানমন্ত্রী ঘটনাস্থলে গেছেন।
ইউএস বাংলার পাইলট ক্যাপ্টেন আবিদ আহত অবস্থায় উদ্ধার : নেপালের ত্রিভূবন এয়ারপোর্টের কাছে দুর্ঘটনার শিকার ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের পাইলট ক্যাপ্টেন আবিদকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।
ঘটনাস্থলের পাশে সারি সারি হলুদ প্লাষ্টিকের ব্যাগ : দুর্ঘটনার কবলে পড়া ইউএস বাংলার ওই উড়োজাহাজে থাকা যাত্রীদের অনেকের মৃতদেহের ছবি প্রকাশ করতে শুরু করেছে নেপালী গণমাধ্যম। নেপালের সেনাবাহিনী সদস্যরা হলুদ প্লাস্টিকের ব্যাগে করে মৃতদেহগুলো উদ্ধার করে ঘটনাস্থলের পাশে রাখতে শুরু করেছে। আশঙ্কা করা হচ্ছে উড়োজাহাজের ৭১ যাত্রী ও ক্রুর মধ্যে ৫০ জনের বেশি ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে ২৫ জনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধারের পর হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে নেপালের পর্যটন মন্ত্রণালয়ের জয়েন্ট সেক্রেটারি সুরেশ আচার্য।
প্রত্যক্ষদর্শীর বর্ণনায় ইউএস বাংলা উড়োজাহাজের দুর্ঘটনা : দুর্ঘটনার কবলে পড়া ইউএস বাংলার উড়োজাহাজটি অল্প জায়গার মধ্যে ঘোরাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় পড়েছে বলে একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছে। নেপালের গণমাধ্যম মাই রিপাবলিককে দেওয়া তাৎক্ষণিক বক্তব্যে আর্নিকো পান্ডে বলেন, আমি তখন এয়ারপোর্টের পাশে রিং রোডে দাঁড়িয়েছিলাম। দেখতে পেলাম একটি উড়োজাহাজ অনেক নিচু হয়ে উড়ে যাচ্ছে। উড়োজাহাজটি টার্মিনালের দক্ষিণ দিকে অস্বাভাবিক রকমের দ্রুত ঘোরাতে গিয়ে হারিয়ে যায়। কিছুক্ষণ পরে প্রচণ্ড শব্দ ও ধোঁয়া দেখতে পেলাম।




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.