অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১২ই ফাল্গুন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৬ই জমাদিউস-সানি, ১৪৩৯ হিজরী

প্রতিভাবান শিল্পী হতে চায় নুসরাত আরীন

Print

বিনোদন প্রতিবেদক : দেশের মানুষ আজ যেখানে বাংলার ঐতিহ্য সাংস্কৃতিকে ভুলে যাচ্ছে, ঠিক তেমনি মুহুর্তে রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলার বহরপুর গ্রামের বাসিন্দা মোছাঃ নুসরাত আরীন প্রতিভাবান নৃত্য ও অভিনয় শিল্পী হতে চায়। সে বর্তমানে ঢাকার ১৪নং মিরপুরের বাসিন্দা ।  নুসরাত আরীন বিএএফ শাহিন কলেজের ছাত্রী । নিজ দেশের সাংস্কৃতিকে নিজের বুকে লালন করে বেড়ে উঠেছে নুসরাত আরীন।আর এজন্যই সে প্রতিভাবান নৃত্য ও অভিনয় শিল্পী হতে চান।
প্শিল্পী নুসরাত আরীনের সঙ্গে আলাপকালে জানান, ছোট বেলা দেখেছি আমাদের এলাকায় বিভিন্ন অচার অনুষ্ঠান  হতো।হতো জারি,সারী,কিচ্ছা,কত কি। খুব ভালো লাগতো। কিন্তু আজ তার কিছুই নেই। বিদেশী সাংস্কৃতির আলেয়া আমাদের সাংস্কৃতি মুছে যেতে চলেছে।
নুসরাত আরীন এর ইচ্ছা সেই হারানো দিনের গ্রাম্য সাংস্কৃতিক আচার অনুষ্ঠানগুলোকে আবার সাধারন মানুষের সামনে নতুন করে তুলে ধরা। এ জন্য প্রয়োজন বিভিন্ন শিল্প মনা সংগঠনের সহযোগীতা। নুসরাত আরীন জানান, আমি আমার লেখা পড়ার ফাঁকে ফাঁকে আমাদের দেশের সাংস্কৃতিকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তুলে ধরতে চেষ্টা করছি। এরই মধ্যে সোহাগ পল্লী, বাংলাদেশ জাতীয় অডিটরিয়াম ও বিএএফ শাহিন কলেজে অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে আমার দেশের আচার অনুষ্ঠানকে তুলে ধরতে চেষ্টা করেছি।
দেশ এবং দেশের মানুষ আজ যেখানে বাংলা সাংস্কৃতিকে ভুলতে বসেছে সেখানে আরীন এই দেশের সাংস্কৃতিকে সাধারন মানুষের হৃদয়ে পৌছে দিতে চায়। নিজের প্রচেষ্টাকে কাজে লাগিয়ে সেই স্থানে যেতে আগ্রহী এই শিল্পী। যেন সবাই তাকে এই দেশের একজন প্রতিভাবান শিল্পী হয়ে উঠতে সহায়তা করেন। আরীন তার লেখাপড়ার পাশাপাশি বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তার শিল্পমনাকে তুলে ধরে সাধারন সাংস্কৃতিক অঙ্গনকে উজ্জল করতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। সেই সঙ্গে চলছে তার বিভিন্ন ধরনের সৌখিনতা। সে টেলিভিশন নাটক এবং বাংলাদেশ চলচ্চিত্রে তার নৃত্য ও অভিনয় শিল্পকর্ম দিয়ে মানুষের মন জয় করতে চায়।
আরীন তার দেশের সকল সাধারন সাংস্কৃতি মনা মানুষের নিকট দোয়া কামনা করেছেন।




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.