অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৭ই চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়ন না হওয়া ভয়ঙ্কর দৃষ্টান্ত: আশরাফ

Print

ঢাকা: ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের পেশাগত নানা সমস্যা প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পরও বাস্তবায়ন না হওয়া একটি ভয়ঙ্কর দৃষ্টান্ত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর এক মিলনায়তনে ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশের (আইডিইবি) প্রতিনিধি সম্মেলনে সৈয়দ আশরাফ এ কথা বলেন।

আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক শামসুর রহমান এ সভায় লিখিত বক্তব্যে ডিপ্লোমা প্রকৌশলীদের পদোন্নতি না হওয়া, বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ বন্ধসহ পেশাগত নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন। একই সঙ্গে এসব ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দেওয়া সত্ত্বেও কাজ হচ্ছে না বলে উল্লেখ করেন।

জনপ্রশান মন্ত্রী বলেন, ‘পদোন্নতিসহ নানা বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা সত্ত্বেও কীভাবে হয় না? তাহলে কোন দেশে আছি আমরা। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ মানা হয় না, এটা আমরা কাছে বিশ্বাসযোগ্য মনে হয় না। একটি আইনের শাসনের দেশে সবকিছু আইন অনুযায়ী চলবে। এটাই শেখ হাসিনার সরকার।’

তিনি বলেন, ‘আপনাদের সঙ্গে একটা বৈঠকের প্রয়োজন। আপনারা যে বিষয়গুলো উত্থাপন করেছেন, আপনাদের সঙ্গে নিয়ে সেগুলো পুঙ্খানুপুঙ্খভাবে পর্যালোচনা করব। কারণ আমি এমন কোনো কথা শুনিনি যে, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ দেওয়ার পরও তা বাস্তবায়ন হয়নি। এটা তো ভয়ঙ্কর দৃষ্টান্ত। এই দৃষ্টান্ত তো শেখ হাসিনার সরকারের নেই। সে জন্য আপনাদের বিষয়গুলো নিয়ে আলোচনা করা প্রয়োজন।’

তিনি আরও বলেন, ‘আপনারা অনেকগুলো বিষয় এখানে উপস্থাপন করেছেন, তা সরকারের বিবেচনায় নেওয়া উচিত। কেন এগুলো বাস্তবায়ন হয় না, কোনো কারণে এগুলো আলোর মুখ দেখে না, সেগুলো আমাদের খুঁজে দেখার প্রয়োজন আছে। আমি প্রতিশ্রুতি দিয়েছি আপনাদের সঙ্গে বসার। এটা ১৫ দিনের মধ্যেই হতে পারে। যে বিষয়গুলো আপনারা উল্লেখ করেছেন এগুলো আলোচনার মাধ্যমে সুরাহা হওয়া সম্ভব। আমি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও আলোচনা করব।’

আইডিইবির সভাপতি একেএমএ হামিদের সভাপতিত্বে প্রতিনিধি সভায় আরও বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের চেয়ারম্যান হেলাল মোর্শেদ খান।

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আইডিইবির কয়েকশ’ সদস্য প্রতিনিধি সভায় যোগ দেন।

দৈনিকচিত্র.কম/এম




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.