অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১০ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৫ই শাবান, ১৪৩৯ হিজরী

বোবা নারী মৌসুমী

Print


বিনোদন প্রতিবেদক :
গতানুগতিক কাজের বাইরে ভিন্ন কিছুর চেষ্টাই করে থাকেন লাক্স তারকা মৌসুমী হামিদ। আর এ ধারার কাজে পরিশ্রম করতেও তার কোনো আপত্তি নেই। আগামী ঈদুল ফিতরের একটি নাটকে এবার বোবা একজন নারীর চরিত্রে অভিনয় করছেন তিনি। ‘কমলার বনবাস’ শিরোনামের এ নাটকটি নির্মাণ করছেন সুমন আনোয়ার। মৌসুমী জানিয়েছেন, প্রথমে এই নাটকে কাজের বিষয়ে অপারগতা প্রকাশ করেছিলেন তিনি। কিন্তু শুটিং করতে গিয়ে নতুন কিছু আবিস্কার করেন মৌসুমী। তিনি বলেন, ‘নাটকটিতে অনেক বাঘা বাঘা অভিনয়শিল্পীদের দেখে আমি একটু ঘাবড়ে যাই। এর বাইরে আবার আমার চরিত্রটি বোবা। তাই একটু আক্ষেপ করেই পরিচালককে বলেছিলাম, এই নাটকে আমাকে নিয়েন না। এ কথা শুনে তিনি বললেন, ‘কেনো?’ আমি বললাম, তারা এত ভালো অভিনেতা যে, প্রতিটি দৃশ্য দারুণ ডেলিভারি দিবে। সব ইমোশনাল সংলাপ তাদের। আর আমার কোনো সংলাপই নাই। এরপর পরিচালক বলেন, ‘পারলে এটাই করো।’ তার এই কথা শুনে আমার ইগোতে লেগেছিল।’’ মৌসুমী হামিদ আরো বলেন, ‘শুটিংয়ের সময় আমি পরিচালকের কথাটা টের পেলাম। কারণ কমলা শুধু বোবা না স্থবিরও। ওর চোখ মরা। পরিচালক বললেন, ‘শুধু চোখের দুই কোণের সাদা অংশ কথা বলবে। আর সব মরা। তারপরই বিপদে পড়ে যাই। কারণ কোনোভাবেই কাজটি হচ্ছিল না। যা-ই করি মনে হয় মন খারাপ করে তাকায় আছি। চোখে লেন্স পরলে কাছাকাছি হয় কিন্তু ফেইক চোখ লাগে। দৃশ্যটি করতে এভাবে দুপুর ২টা বেজে যায়। তখন পরিচালক বললেন, ‘ডি ফোকাস করে দেখ।’ আমাদের চোখও তো ক্যামেরার লেন্সের মতো। চাইলেই ডিফোকাস দেখা যায়। করলামও তাই। কিন্তু সেটা কতক্ষণ সম্ভব। কারণ মাথায় প্রচন্ড চাপ পড়ছিল। যদি মাথা ঘুরে পড়ে যাই, এজন্য আমার পেছনে দুজন লোক সারাদিন দাঁড়িয়ে ছিল।




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.