অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৪১ হিজরী

ভালো কাজের দৃষ্টান্ত কম: ওবায়দুল কাদের

Print

দৈনিক চিত্র রিপোর্ট : ‘কোনো অনুষ্ঠানে মন্ত্রীরা এলেই কাজ আছে বলে চলে যান। এটা অনেকটা এমন, মাধবী এসেই বলে, যাই? আমি যেতে চাইছি না। খেলাঘরের প্রোগ্রামে থাকতে ইচ্ছে করছে। তবু পার্টি অফিসে জরুরি কাজ আছে বলে যেতেই হচ্ছে।’

কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসরের জাতীয় শিশু-কিশোর সাংস্কৃতিক উৎসবে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে মঞ্চের অন্য অতিথিদের আগেই বক্তব্য দিয়ে চলে যাওয়ার প্রাক্কালে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ওই কথাগুলো বলেন।

বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির সঙ্গীত ও নৃত্যকলা কেন্দ্র মিলনায়তনে খেলাঘরের তিন দিনব্যাপী এই সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু হয়।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজকাল মঞ্চে খুব কম আসি। একসময় শিল্পকলা, বটতলা প্রভৃতি জায়গায় আড্ডা দিতে যেতাম। মনে পড়ে, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর যখন মানুষ ভয়ে খুব কম বের হতো, তখনও পান্না ভাবীসহ (অধ্যাপিকা পান্না কায়সার) খেলাঘরের আরও অনেকের সাথে আড্ডা দিতাম।’

ক্ষমতা বেশিদিন থাকে না উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘যখন ক্ষমতা থাকবে না, তখন মঞ্চে যাওয়ার সময় পাবো। তখন অনেক আড্ডা দেব। হয়তো সরকার থাকবে, আমি মন্ত্রী থাকবো না। এখন যেহেতু ক্ষমতায় আছি, কাজ করে যেতে চাই।’

বর্তমানে ভাষণসর্বস্ব রাজনীতি চলছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এখানে কথামালা আছে। অনেকের কথায় ফরমালিনও আছে। আবার অনেকের মুখভরা বিদ্বেষ। বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চ ভাষণ দিয়েছিলেন। সেই ভাষণে কর্তৃত্ব ছিল, নেতৃত্ব ছিল। আজকাল কয়টা ভাষণে কর্তৃত্ব ও নেতৃত্ব থাকে? ভালো কথা ফুরিয়ে যাচ্ছে। ভালো কাজেরও দৃষ্টান্ত কম। আমি ভালো কাজের দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই।’

পদ্মাসেতুর কাজ শুরু হওয়ায় আনন্দ হচ্ছে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘ঢাকায় মেট্রোরেল চলবে, এক্সপ্রেসওয়ে চলবে। আরও দুটি মেট্রোরেলের জন্য জাইকাকে অনুরোধ করেছি। চট্টগ্রামে কর্ণফুলি টানেলের কাজ আগামী বছরের শুরুতেই আরম্ভ হবে।’

মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার নির্মাণ করতে গিয়ে জনদুর্ভোগের কথা স্বীকার করে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জন্মকালের বেদনা থাকে। কিন্তু কাজ শেষ হলে আমরা যখন সম্পূর্ণটা দেখি তখন সেই কষ্টের কথা ভুলে যাই। এই ফ্লাইওভার নির্মাণ হলেও সবাই কষ্ট ভুলে যাবে। আসলেই এটাতে এতো বিলম্বের প্রয়োজন ছিল না। মাসখানেকের মধ্যেই এই ফ্লাইওভারের ফার্স্ট বেইজের কাজ শেষ হবে। এরপর শুরু হবে সেকেন্ড বেইজের কাজ।’

৪৪ বছর পর আজ ভালো লাগছে জানিয়ে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজ সত্যিই সারাদিন ভালো লেগেছে। এর কারণ, জাতিসংঘ জানিয়েছে আর্থ-সামাজিকসহ সব সূচকে বাংলাদেশ পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে আছে। একাত্তরে আমরা পাকিস্তানকে পরাজিত করেছি। এখন সব দিক দিয়েই পরাজিত করছি। আজ আমার খুব আনন্দ লাগছে। মনে হচ্ছে, বঙ্গবন্ধু এই দেশ স্বাধীন করে ভুল করেননি।’

‘পাকিস্তান শুধু একটি দিক দিয়ে আমাদের চেয়ে এগিয়ে, আর তা হলো পরমাণু বোমা। পরমাণু বোমায় তারা এগিয়ে আছে। আমরা এইদিক দিয়ে এগোতে চাই না, কারণ আমরা ধ্বংস চাই না’, যোগ করেন মন্ত্রী।

জন্মের পর খেলাঘর ৬৪ বছর পার করেছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আজ খেলাঘরের বয়স ৬৪। এই সংগঠনকে ৬৪ বার অভিনন্দন জানাই। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এই সংগঠন দীর্ঘদিন কাজ করছে, এটা অনেক বড় প্রাপ্তি।’




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.