অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৮ই জিলহজ্জ, ১৪৪১ হিজরী

রেলপথে আসছে গরু

Print

স্টাফ রিপোর্টার : ১৩ বছর পর দেশে আবারও শুরু হয়েছে রেলপথে পশু পরিবহন। বুধবার(২৯ জুলাই) সকালে জামালপুর থেকে প্রথম ক্যাটাল স্পেশাল ট্রেন ২১৬টি গরু নিয়ে ঢাকায় এসে পৌঁছায়। প্রতি গরুতে ভাড়াবাবদ খরচ পড়েছে ৫০০ টাকা।

করোনায় ৬৮ দিন সরকারি ছুটি থাকায় চলেনি ট্রেন। গত ৩১ মে থেকে সীমিত আকারে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। আর এবার ঈদে খামারিদের সুবিধার্থে গত ৭ জুলাই পশুবাহী ওয়াগন চালনার ঘোষণা দেয়া হয়।

কমলাপুরের স্টেশন ম্যানেজার এই পশুবাহী ওয়াগন রেক সম্পর্কে গণমাধ্যমে জানান, দু’টি ওয়াগন রেক প্রস্তুত রাখা হলেও পশু পরিবহনের চাহিদা না থাকায় তা চালু করা যাচ্ছিল না। পশ্চিমাঞ্চলের ওয়াগন না চললেও, গত মঙ্গলবার রাতে ইসলামপুর থেকে ২৩০ এবং মেলান্দহ থেকে ৩১টি গরু নিয়ে যাত্রা করে ‘ক্যাটাল স্পেশাল’। মিটারগেজ ১৭ ওয়াগনের প্রতিটির ধারণ ক্ষমতা ১৬টি গরু। খামারিদের সুবিধার্থে ওয়াগনের শেষে যুক্ত করা হয় একটি যাত্রীবাহী বগি। জয়দেবপুর, তেজগাঁওয়ে কিছু গরু নামিয়ে বাকিগুলো নিয়ে কমলাপুরের আট নম্বর প্ল্যাটফর্মে আসে ওয়াগনটি।

এদিকে রেলপথে গরু পরিবহন করতে পেরে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন বেপারিরা। সড়ক পথে গরু পরিবহনে ঝামেলা বেশি। প্রতি গরুতে প্রায় দেড় থেকে ২ হাজার টাকার মতো খরচ পড়ে যায়। এছাড়াও নেই বিশ্রাম বা বসার জায়গা। যানজট রয়েছে, আরও আছে বৃষ্টির সমস্যা। তাইলে রেলপথে গরু পরিবহন করতে পেরে তারা লাভবান হয়েছেন বলে জানান তারা।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.