অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১লা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১২ই জিলক্বদ, ১৪৪০ হিজরী

সাবেক মন্ত্রীকে বিয়ে করছেন সানাই, আংটিবদল সম্পন্ন

Print

দৈনিক চিত্র প্রতিবেদক:
সাবেক একজন মন্ত্রীকে বিবাহ করছেন আলোচিত মডেল এবং চিত্রনায়িকা সানাই মাহবুব। তিনি বলেন, ‘বাধ্য হয়েই বিয়ে করছি। আমার হবু বর একজন সাবেক মন্ত্রী। সংগত কারণে তাঁর নাম এই মুহূর্তে বলতে চাই না।’

রবিবার সকালে তিনি দৈনিক চিত্রের কাছে দাবি করেন, হঠাৎ করেই তাঁর বাগদান হয়েছে। কিন্তু নিজেদের ভবিষ্যতের কথা ভেবে হবু স্বামীর নাম ও পরিচয় এখনই প্রকাশ করতে চান না। সানাই বলেন, ‘এই মুহূর্তে বিয়ে করার কোনো ইচ্ছে ছিল না। কিন্তু কিছুদিন ধরে নানা কারণে মা আমাকে নিয়ে ভীষণ চিন্তা করছেন। আমি মাকে আর বেশি চিন্তার মধ্যে রাখতে চাইনি। তাই আমার প্রেমিককে আম্মুর উদ্বেগের কথা জানাই। সে তখন বলল, চলো আমরা আপাতত এনগেজমেন্ট সেরে নিই, এরপর সুবিধাজনক সময়ে বিয়ে করে ফেলব। এভাবেই আংটিবদলের কাজটা সেরে নিয়েছি।’

সানাই জানান, শনিবার সকাল ১১টায় তাঁর গুলশানের বাসায় আংটিবদলের পর্ব সম্পন্ন হয়। সেখানে সানাইয়ের বাবা-মা উপস্থিত ছিলেন। সানাই জানালেন, এটা হবে তাঁর দ্বিতীয় বিয়ে। স্বামীর পরিচয় প্রকাশ করতে সমস্যা কোথায়? সানাই বলেন, ‘কিছু সমস্যা তো আছেই। তা না হলে এখনই বলে দিতাম। আমাদের আসলে কোনো সমস্যা নেই, মানুষজন উল্টাপাল্টা কথা বলবে, তাই এখনই হবু স্বামীর নাম প্রকাশ করতে চাই না। তবে এটুকু আশ্বস্ত করতে চাই, যে মানুষটার সঙ্গে আমার আংটিবদল হয়েছে, তিনি আমার স্বপ্নপূরণে বরাবরই সহযোগিতা করেছেন। মডেল ও চিত্রনায়িকা হওয়ার যে স্বপ্ন আমার মধ্যে আছে, তার সবচেয়ে বড় অনুপ্রেরণা এই মানুষটি।’

সানাই জানান, তাঁর হবু বর এর আগে একটি গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে ছিলেন। তবে সর্বশেষ নির্বাচনে তিনি অংশ নেননি। সরাসরি জড়িত আছেন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে। তিনি একজন ব্যবসায়ীও।

কয়েকটি গানের ভিডিওতে কাজ করেছেন সানাই। এরপর যুক্ত হন চলচ্চিত্রে। দুটি চলচ্চিত্রে সাইন করেছেন। ‘ময়নার ইতিকথা’ ছবির কাজ শেষ করেছেন, আরেকটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হন জায়েদ খানের বিপরীতে। গাজী মাহবুব পরিচালিত ‘ভালোবাসা ২৪.৭’ নামের এই ছবির মহরত হলেও এখনো শুটিং শুরু হয়নি। মিউজিক ভিডিও আর চলচ্চিত্রে তাঁকে ঘিরে যতটা আলোচনা, এর চেয়ে বেশি আলোচনা তাঁর উদ্ভট সব কর্মকাণ্ড নিয়ে। তাঁর বিরুদ্ধে ফেসবুক, ইউটিউব আর টিকটক অ্যাপে আপত্তিকর ভিডিও প্রকাশের অভিযোগ অনেক দিনের।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.