অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১০ই রবিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

হার দিয়ে সাফ মিশন শুরু বাংলাদেশের

Print

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট: হোক বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। আফগানিস্তানতো আর অজেয় নয়। ম্যাচের আগে শিষ্যদের এমন আশার বাণী দিয়েই উজ্জীবিত করেছিলেন বাংলাদেশ কোচ মারুফুল হক। কিন্তু মাঠের খেলায় চিত্র ভিন্ন। যেখানে ঠিক খুঁজেই পাওয়া গেল না মামুনুলদের। বরং দেখা গেল আফগান শিবিরের প্রবল দাপট। ফলে যা হবার তাই হয়েছে। ভারতের কেরালায় চলমান সাফ সুজুকি ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে বাজে সূচনাই হয়েছে বাংলাদেশের। বৃহস্পতিবার ত্রিবান্দ্রামে বি গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের সঙ্গে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে হেরেছে মামুনুল শিবির।

শুরুতে একটু বুঝেশুনেই খেলতে শুরু করে দুই দল। তবে বল পজিশনে থাকে আফগানদের দাপট। ফলে অনেকটাই রক্ষণাত্মক কৌশলে চলে যায় বাংলাদেশ। এই সুযোগটা ভালোমতোই নেয় আফগানিস্তান। ৩০ থেকে ৪০, মাত্র ১০ মিনিটের ঝড়ে চিত্র পাল্টে হয়ে যায় ঘোলাটে। বাংলাদেশ হজম করে পরপর তিন গোল। ম্যাচের নিয়তি বলা চলা তখনই লেখা হয়ে যায়।

৩০ মিনিটে প্রথম গোলের দেখা পায় আফগানিস্তান। আমিনের কর্ণারে মাথা লাগিয়ে গোলটি করেন মাসি সাগহানি। এর মিনিট দুয়েক পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন আফগানিস্তানের ফয়সাল শায়েস্তা। বা দিক থেকে আমিনের স্কয়ার পাস। অধিনায়ক ফয়সালের দুর্দান্ত চিপ। বল জড়ায় জালে। বাংলাদেশের ডিফেন্ডারার দ্রুত ফেরালেও তা গোললাইন অতিক্রম করে যায় (২-০)।

দুই মিনিটে দুই গোল হজম করে তখন অপ্রস্তুত বাংলাদেশ। ৪০ মিনিটেই তৃতীয় গোল জুবায়ের আমিরির। জাজাইর চিপ থেকে দুর্দান্ত ভলিতে গোল করেন আমিরি। স্কোর তখন ৩-০। প্রথমার্ধের খেলা শেষ হয় এই ব্যবধানেই।

দ্বিতীয়ার্ধে কৌশল পাল্টে খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। তাতে খুব একটা লাভ হয়নি। উল্টো ৬৯ মিনিটে চতুর্থ গোল হজম করে মারুফ বাহিনী (৪-০)। আফগানদের হয়ে এই গোলটি করেন খাইবার আমিনি। শেষ পর্যন্ত একটি গোলও পরিশোধ করতে পারেনি বাংলাদেশ। ফলে ৪-০ গোলের বড় হারের লজ্জা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় মামুনুলদের।

পুরো ম্যাচে আফগানিস্তানের বল পজিশন ছিল শতকরা ৬১ ভাগ। সেখানে বাংলাদেশের ৩৯ ভাগ। বলার অবকাশ রাখে না, প্রবল দাপটেই খেলেছে পিটার সিগ্রেট শিবির। সেখানে পুরো ম্যাচে উল্লেখযোগ্য তেমন আক্রমণই করতে পারেনি বাংলাদেশ। শুরুর দিকে একটু উজ্জীবিত মনে হলেও দ্রুত তিন গোল হজম করার পর সবাই কেমন জানি নুইয়ে পড়ে।

অথচ এই আফগানদের সঙ্গে অতীতে কোন হারের রেকর্ড ছিল না বাংলাদেশের। পাঁচবারের মোকাবেলায় চারটিতে ড্র, একটিতে জিতেছিল বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার সাফ ফুটবলের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে আফগানদের সঙ্গে প্রথমবারের মতো হারের স্বাদ নিতে হলো মামুনুলদের।

বি গ্রুপে বাংলাদেশের অপর দুই প্রতিপক্ষ মালদ্বীপ ও ভুটান। আগামী ২৬ ডিসেম্বর গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ম্যাচে মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। ২৮ ডিসেম্বর শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভুটান।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.