অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ৩রা রবিউস-সানি, ১৪৪০ হিজরী

কারাগারে সালমান: থমকে গেছে বলিউড

Print

বিনোদন প্রতিবেদক : কৃষ্ণসার হরিণ শিকার মামলার রায়ে গতকাল বৃহস্পতিবার বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে দোষী সাব্যস্ত করে পাঁচ বছরের কারাদÐ দিয়েছে ভারতের রাজস্থানের যোধপুরের একটি আদালত। পাশাপাশি তাকে ১০ হাজার রুপি জরিমানাও করা হয়েছে। এই মামলায় অন্য তিন অভিযুক্ত সাইফ আলী খান, টাবু ও সোনালী বেন্দ্রেকে আদালত বেকসুর খালাস দিয়েছেন। রায়ের পর সালমানকে যোধপুর সেন্ট্রাল জেলে পাঠানো হয়। কারাগার ও এর আশপাশে নেওয়া হয়েছে নিñিদ্র নিরাপত্তা। কারাগারের ভেতরে যাতে এই বলিউড তারকার নিরাপত্তা সামান্য বিঘিœত না হয়, সে ব্যাপারে কঠোর খেয়াল রাখছেন কারাগার কর্তৃপক্ষ। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এই কারাগারেই নাকি আছেন আরও কয়েকজন সেলিব্রিটি কয়েদি। সূত্র জানায়, গতকাল দায়রা আদালতে সালমান খানের জামিন আবেদনের উদ্যোগ নিয়েছেন তার আইনজীবী। সংবাদমাধ্যমের কাছে তিনি দাবি করেছেন, জামিনের সব কাগজ তৈরি করা হয়েছে। পাঁচ বছরের বেশি জেল হওয়ায় যোধপুর আদালত তাকে জামিন দিতে পারবেন। তবে জামিন না পাওয়া পর্যন্ত সালমান খানকে এই কারাগারে থাকতে হবে। এদিকে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে জানা গেছে, রায় ঘোষণার পর সালমান খানকে হাতকড়া পরিয়ে যোধপুর কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। গতকাল স্থানীয় সময় দুপুর ২টা ৫০ মিনিটে সালমানকে বহনকারী পুলিশের একটি গাড়ি আদালত থেকে কারাগারে প্রবেশ করে। এ সময় চারপাশে ব্যাপক নিরাপত্তা জোরদার ছিল। ওই সময় সেখানে উৎসুক জনতা ভিড় করে। পুলিশ লাঠিচার্জ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়। সূত্র আরো জানায়, গত বুধবার মুম্বাই থেকে যোধপুরে এসেছেন সালমান খান। রায় ঘোষণার সময় আদালতে ছিলেন তিনি। রায় শুনে খুবই বিমর্ষ ছিলেন নায়ক। তার সঙ্গে ছিলেন দুই বোন আলভিরা খান অগ্নিহোত্রী ও অর্পিতা খান শর্মা। ভাইয়ের মনের জোর বাড়াতে সঙ্গেই ছিলেন তারা। কিন্তু রায় ঘোষণার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন আলভিরা। আদালতের মধ্যেই থমকে দাঁড়িয়ে থাকেন। অর্পিতা কোনো মন্তব্য করেননি।
সেদিন যা ঘটেছিল
প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, ২০ বছর আগে ১৯৯৮ সালের ১ ও ২ অক্টোবর যোধপুরে ‘হাম সাথ সাথ হ্যায়’ ছবির শুটিংয়ের মাঝে আলাদা আলাদা জায়গায় দুটি কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করেন সালমান খান। ওই সময় তার সঙ্গে ছিলেন সাইফ আলী খান, নীলম, টাবু ও সোনালী বেন্দ্রে। রাজস্থানের যোধপুরের কঙ্কানি এলাকায় গ্রামের ক্ষুদ্র জাতিসত্তার অধিবাসীদের অভিযোগ, গুলির শব্দ শুনে তারা সালমানের জিপসি গাড়িটি ধাওয়া করে। কিন্তু তাদের ধরা যায়নি। ওই সময় চালকের আসনে ছিলেন সালমান খান। গ্রামবাসীর দাবিÑ প্রবল গতিতে গাড়ি চালিয়ে সালমান খান ও তার সঙ্গীরা পালিয়ে যান। ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে আরো জানা গেছে, যোধপুরের আদালতে সালমান খানকে বন্য প্রাণী সংরক্ষণ আইনের ৫১ ধারায় দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। রায় হওয়ার পর সাংবাদিকদের কাছে সালমান খানের আইনজীবী এইচএম সারস্বত দাবি করেন, সরকারি কৌঁসুলি অভিযোগের সপক্ষে প্রমাণ সংগ্রহ করতে পারেননি। মামলা সাজাতে ভুয়া সাক্ষী দাঁড় করিয়েছেন। এমনকি বন্দুকের গুলিতেই যে কৃষ্ণসার দুটির মৃত্যু হয়েছিল, তা-ও সরকারি কৌঁসুলি প্রমাণ করতে পারেননি। গত ২৮ মার্চ নিম্ন আদালতে কৃষ্ণসার মামলার চূড়ান্ত পর্যায়ের শুনানি শেষ হয়।
থমকে গেছে বলিউড
এদিকে সালমানের এই কারাদÐের কারণে অনেকটা থমকে গেছে বলিউড। অনেক চিত্র প্রযোজক অনিশ্চয়তার মুখে পড়েছেন। কারণ, এরইমধ্যে এক হাজার কোটি রুপির বেশি লগ্নি করা হয়েছে এই সুপার স্টারকে ঘিরে। তার জেলে যাওয়ার পর শুরুতেই সংকটে পড়বে ১০০ কোটি রুপি বাজেটের রেমো ডি’সুজার ‘রেস থ্রি’ ছবিটি। আগামী ঈদ উপলক্ষে ১৫ জুন ছবিটি মুক্তি দেওয়ার কথা। নির্মাতারা আশা করছেন, আগের দুটি ‘রেস’ সিরিজের চেয়ে এই ছবি কয়েক গুণ বেশি ব্যবসা করবে। কিন্তু ছবির নায়ক অপরাধী সাব্যস্ত হয়ে জেলে যাওয়ায় সংকটে পড়বে ছবির প্রচারণা। ‘রেস থ্রি’র পর পরিচালক আলী আব্বাস জাফরের নতুন ছবি ‘ভারত’-এর শুটিং শুরু করার কথা ছিল সালমান খানের। এর আগে এই জুটির দুটি ছবি ‘সুলতান’ ও ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ সুপারহিট হয়। কিন্তু ২০০ কোটি রুপি বাজেটের এই ছবির ওপর বড় বাজি ধরেছেন পরিচালক। শোনা যাচ্ছে, ‘ভারত’ ছবিতে নাকি পাঁচটি আলাদা লুকে দেখা যাবে সালমানকে। ‘দাবাং’ সিরিজের তৃতীয় ছবি ‘দাবাং থ্রি’। সিরিজের আগের দুটি ছবি বক্স অফিসের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছিল। আগামী বছর জানুয়ারি মাসে ‘দাবাং থ্রি’ ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা। সালমান খান জেলে গেলে ছবির শুটিং স্থগিত হয়ে যাবে। ‘কিক’ সিরিজের নতুন ছবি ‘কিক টু’। প্রথম ছবির মতো দ্বিতীয়টিতেও দেখা যাবে সালমান খান ও জ্যাকুলিন ফার্নান্দেজকে। ২০১৯ সালের বড়োদিনে মুক্তি পাওয়ার কথা ছবিটির। চলচ্চিত্রের বাইরে টিভিতেও দেখা যাওয়ার কথা সালমান খানকে।




মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.