অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই সফর, ১৪৪৩ হিজরী

অক্ষর থেকে উঠে আসা মানুষ

Print

বিনোদন প্রতিবেদক : এ দেশের টিভি নাটকের সবচেয়ে জনপ্রিয় জুটি আফজাল হোসেন ও সুবর্ণা মুস্তাফা। ফের তারা একসঙ্গে কাজ করেছেন। বদরুল আনাম সৌদ রচিত ও পরিচালিত ‘অক্ষর থেকে উঠে আসা মানুষ’ শিরোনামের নাটকে তাদের দেখতে পাবেন দর্শক। গত ২৬ ও ২৭ ফেব্রæয়ারি রাজধানীর উত্তরায় নাটকটির শুটিং হয়েছে। এতে অভিনয় প্রসঙ্গে আফজাল হোসেন বলেন, ‘এটা অনেক ভালোলাগার বিষয় যে, নাটক প্রসঙ্গে আলোচনা এলে আমাদের দুজনের নাম সবসময়ই একসঙ্গে উচ্চারিত হয় শ্রদ্ধার সাথে। অভিনয় জীবনের এটা অনেক বড় প্রাপ্তি। অবশ্যই অনেক সম্মানেরও বিষয়। দর্শকের কাছে জুটি হিসেবে আমাদের এই সম্মান ধরে রাখার দায়িত্ব আমাদের দুজনেরই। আমরা প্রতিনিয়ত অনেক নাটকে কাজ করার প্রস্তাব পাই। কিন্তু দর্শকের কৌতূহল বা আগ্রহ যেন থাকে আমাদের নাটক দেখার, সে জন্য আমরা খুব বেছে বেছে কাজ করি। সৌদের লেখা গল্প সবসময়ই আমার ভীষণ ভালো লাগে। অক্ষর থেকে উঠে আসা মানুষের গল্পটা অন্যরকম।’ সুবর্ণা মুস্তাফা বলেন, ‘আফজালের সঙ্গে আমার সখ্য দীর্ঘদিনের। বলা যায় আমরা একসঙ্গে বড় হয়েছি। একই থিয়েটারের হয়ে মঞ্চে অভিনয় করেছি। সুতরাং তার সঙ্গে যে কোনো নাটকে কাজ করতে গেলে স্বাচ্ছন্দ্যতা তো থাকবেই। কাজের ক্ষেত্রে আফজাল আমার কাছে এক বিশ্বাসের নাম, ভরসারও স্থান। অনেক সময় আমাদের মতভেদে ভিন্নতাও দেখা দেয়, আমরা ঝগড়াও করি। কিন্তু কাজের সময় তা ভুলে গিয়ে কাজটিই সর্বোচ্চ মনোযোগ দিয়ে করি। আফজাল অনেক কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকে। মনোযোগ দিয়ে অভিনয় করতে পারবে না বিধায় অভিনয়ে নিয়মিত নয়। তবে যখন অভিনয় করে তখন পুরো মনোযোগ দিয়েই করে। আরেকটি কথা না বললেই নয়, সৌদের ভাবনায় এতো চমৎকার গল্প কীভাবে আসে, তা আমার বোধগম্য নয়। সত্যিই চমৎকার গল্পের একটি নাটকে কাজ করলাম।’ নাটকটির গল্প প্রসঙ্গে পরিচালক বদরুল আনাম সৌদ বলেন, ‘সুবর্ণা মুস্তাফা এই নাটকে একজন লেখিকা। আর আফজাল ভাই তারই লেখা একটি চরিত্র। লেখিকার ধারণা ছিলো তিনি যেভাবে ভাববেন সেভাবেই আফজাল হোসেনের চরিত্রটি ফুটে উঠবে। কিন্তু না তেমনটি হয়নি। একটি সময় এসে লেখিকার সঙ্গে তারই সৃষ্ট সেই চরিত্রের এক আবেগের সম্পর্ক তৈরী হয়। এ এক অন্যরকম সম্পর্কের গল্প।’




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: