অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে সফর, ১৪৪৩ হিজরী

অধ্যাপক জাফর ইকবাল শঙ্কামুক্ত

Print

অনলাইন ডেস্ক : ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. জাফর ইকবাল শঙ্কামুক্ত। রোববার সকালে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর-আইএসপিআর।

শনিবার বিকাল ৫টা ৪০ মিনিটে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে হামলার শিকার হন ড. জাফর ইকবাল। তাকে পেছন থেকে মাথায় ছুরিকাঘাত করে অজ্ঞাত এক যুবক। পরে ওই যুবককে ধরে গণপিটুনি দেয় শিক্ষার্থীরা।

হামলায় আহত লেখক-শিক্ষাবিদ এবং শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালের মাথা ও হাতে ৪টি আঘাত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসকরা। তবে তিনি এখন শঙ্কমুক্ত।

জালালাবাদ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম জানান, শনিবার বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চে ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) ফেস্টিভ্যালের সমাপনী অনুষ্ঠান চলাকালে এ হামলা চালানো হয়। অনুষ্ঠানে জাফর ইকবাল বক্তব্য দিচ্ছেলেন। এ সময় পেছন থেকে তার মাথায় ছুরিকাঘাত করা হয়। ঘটনার সঙ্গে জড়িত একজনকে আটকে পিটুনি দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি কক্ষে আটকে রাখে সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

অধ্যাপক জাফর ইকবালের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদিন বলেন, মঞ্চের পেছন থেকে এসে এক ছেলে ছুরি দিয়ে আঘাত করে। সঙ্গে সঙ্গে পুলিশসহ অন্যরা তাকে আটক করে। হামলাকারীর বয়স ২৪ থেকে ২৭ বছর হবে।

কী কারণে জাফর ইকবালের উপর এই হামলা হয়েছে, সে বিষয়ে কিছু তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

এদিকে শিক্ষকের ওপর হামলার প্রতিবাদে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীরা।

হামলাকারীর পরিচয় পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন জালালাবাদ থানার ওসি শফিকুল ইসলাম স্বপন। তিনি জানান, জনতার হাতে আটক হামলাকারীর নাম ফয়জুর রহমান। সে সুনামগঞ্জ জেলার দিরাই উপজেলার কালিয়ার কাপন গ্রামের আতিকুল ইসলামের ছেলে। ফয়জুর বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন কুমারগাঁও বাসস্ট্যান্ডের কাছে শেখপাড়া এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতো বলে জানান ওসি। তদন্তের স্বার্থে এর বেশি তথ্য দিতে চাননি তিনি।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: