অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১১ই সফর, ১৪৪৩ হিজরী

অর্জিত স্বাধীনতা যেন নস্যাৎ না হয়: প্রধানমন্ত্রী

Print

অনলাইন ডেস্ক : নিজ ভাষা ও সংস্কৃতির স্বকীয়তা বজায় রাখার আহবান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্বাধীনতার অর্জন যেন কোনোভাবেই নস্যাৎ না হয় সেদিকে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি বলেন, নিজেদের গৌরব গাথা নিজেদেরই সংরক্ষণ ও প্রচার করতে হবে। আমাদের জামদানি রয়েছে। সেটার অধিকার কেড়ে নেয়ার চেষ্টা হয়েছে। আমরা সে অধিকার ফিরে পেয়েছি। আমাদের মঙ্গল শোভাযাত্রাকে ইউনেস্কো স্বীকৃতি দিয়েছে। বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের স্বীকৃতি পেয়েছি। নকশিকাথা ও সিলেটের শীতল পাটির স্বীকৃতি মিলেছে। এগুলো আমাদের অর্জন। এসব ঐতিহ্য সংরক্ষণ ও প্রচার করতে হবে।
আজ মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে একুশে পদক প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।
শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশকে আরো উন্নত সমৃদ্ধ করে যেন গড়ে তুলতে পারি সেজন্য দেশবাসীর সহায়তা চাই। রক্তের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের স্বাধীনতা কেউ যেন নস্যাৎ করতে না পারে সেজন্য দেশবাসীকে সজাগ থাকতে হবে। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। দরিদ্র বলে কেউ অবহেলা করতে পারে না। কেউ আমাদের আর করুনা করতে পারে না। বিশ্বের বুকে একটি মর্যাদা পেয়েছি। আমরা চাই মর্যাদাটা ধরে রেখে এগিয়ে যাবো। সে লক্ষ্যে নিয়েই আমরা কাজ করছি। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা আমরা গড়ে তুলতে এ জন্য সকলের সহযোগীতা চাই।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্বাধীনতার পর জাতিসংঘের অধিবেশনে বাংলায় প্রথম ভাষণ দেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তারই পদাঙ্ক অনুসরণ করে প্রতিবছর জাতিসংঘের অধিবেশনে বাংলায় ভাষণ দেওয়া হচ্ছে। পাকিস্তানের প্রেতাত্মারা এখনও সক্রিয় বলেই দেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্যের উপর বার বার আঘাত আসছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি। এর আগে বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিস্বরূপ ২১ গুণীকে একুশে পদক প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: