অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই সফর, ১৪৪২ হিজরী

‘অ্যান্টিবডি টেস্টের অনুমতি পেলে বাংলাদেশ বিশ্বে নাম করতো’

Print

স্টাফ রিপোর্টার : করোনাভাইরাস শনাক্তের পরীক্ষায় জালিয়াতির জন্য সরকার দায়ী উল্লেখ করে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, দূরদর্শীতার অভাব ও বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ না নেয়ায় আজ এ অবস্থা। দুমাস আগেই যখন চীন আমাদের দেশে ভ্যাকসিন ট্রায়ালের অনুমতি চাইলো, আমি বললাম এখনই অনুমতি দেন। সেই অনুমতি দেয়া হলে দেশের মানুষ আজ উপকৃত হতো। তার চেয়েও বড় কথা, আমার দেশের লোকেরা ভ্যাকসিন তৈরি শিখে নিতে পারতো, জ্ঞান বাড়তো।

শনিবার(২৯ আগস্ট) ঢাকাস্থ ধানমন্ডির গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালে কোভিড-১৯ আরটি-পিসিআর পরীক্ষার উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন ডা. জাফরুল্লাহ।

এসময় তিনি আরও বলেন, আমরা অর্থ সংগ্রহ করছি। সর্বোচ্চ কোয়ালিটি মেইনটেইন করে গবেষণা শুরু করেছি। বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই বিশ্বে নাম করেছে ওষুধ রপ্তানি করে। ঠিক একইভাবে বাংলাদেশ অ্যান্টিবডি টেস্টের কারণেও সমাদৃত হতো।

গণস্বাস্থ্যের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, আপনারা অনেক ভালো উদ্যোগ নিয়েছেন। তবে খেয়াল রাখতে হবে, টেস্টের সময় যেন স্বাস্থ্যকর্মীদের করোনায় আক্রান্ত না হয়। আবার স্যাম্পলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে এবং রেজাল্ট অ্যাকুরেট করতে হবে।

অনুজীব বিজ্ঞানী ডা. বিজন কুমার শীল বলেন, যখন আমরা জানুয়ারিতে কাজ শুরু করেছিলাম তখনই আমাদের এই ল্যাব স্থাপনের পরিকল্পনা ছিল। এখন ল্যাবরেটরি প্রতিষ্ঠা হয়েছে, সমস্ত মেশিনও হাতের কাছে এসে পৌঁছেছে। পিসিআর টেস্টের মাধ্যমে আমরা মূলত স্রোতধারার সাথে মিলিত হতে যাচ্ছি।

গণস্বাস্থ্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, র‌্যাপিড টেষ্ট করতে বাইরের একজন রোগীকে গুনতে হবে ৩ হাজার টাকা। আর গণস্বাস্থ্য হাসপাতালে যাদের স্বাস্থ্য বীমা আছে তাদের দুই থেকে আড়াই হাজার টাকা দিতে হবে। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের সহযোগী সংগঠন গণস্বাস্থ্য আরএনএ বায়োটেক লিঃ এর সার্বিক সহায়তায় একটি অত্যাধুনিক মলিকিউলার ডায়াগনোসটিক ল্যাবরেটরী স্থাপন করা হয়েছে ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: