অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জিলক্বদ, ১৪৪২ হিজরী

আইএসের হাতে যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র

Print

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইসলামিক স্টেটের বিজ্ঞানী এবং অস্ত্র বিশেষজ্ঞরা মিলে প্রস্তুত করতে সক্ষম হয়েছে এমন একধরনের উন্নত প্রযুক্তির অস্ত্র যার মাধ্যমে যাত্রীবাহী বিমান ভূপাতিত করতে পারবে তারা। নতুন একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় আইএস সদস্যরা সিরিয়ার রাক্কাতে একটি থার্মাল ব্যাটারি তৈরি করছেন। আকাশে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করার কাজে এ ধরনের ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আইএসের মত সন্ত্রাসী দলগুলোর হাতে এই ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র আগে থেকেই ছিল কিন্তু সেটা নিক্ষেপ করার প্রস্তুতি না থাকায় সেগুলো তারা লুকিয়ে রেখেছিলেন। কারণ থার্মাল ব্যাটারি তৈরি করাটা কঠিন কাজ। এর জন্য প্রয়োজন হয় আধুনিক প্রযুক্তি এবং জ্ঞানের।

২০০১ সালে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্র এবং যুক্তরাজ্য প্রবেশের পর তারা আফগান মুজাহিদিনদের ক্ষেপণাস্ত্র দেয় রাশিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবহারের জন্য। অনেকেরই ভয় ছিল এই ক্ষেপণাস্ত্রগুলো বাজেয়াপ্ত হলে সেটা পশ্চিমাদের উপরেও ব্যবহার করা হতে পারে। তবে এটা নিয়ে কেউ চিন্তিত ছিলেন না, কারণ তাদেরকে যে ব্যাটারিগুলো দেয়া হয়েছিল সেগুলোর মেয়াদ শেষ হয়ে যেত খুব শিগগিরই। ব্যাটারি ছাড়া ক্ষেপণাস্ত্রের নিক্ষেপ সম্ভব না।

কিন্তু এখন যদি সন্ত্রাসীরা এই ধরনের থার্মাল ব্যাটারি তৈরি করতে সক্ষম হন তাহলে তারা ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করতে পারবেন। এই সমস্ত ক্ষেপণাস্ত্র একটা যাত্রীবাহী বিমানকেও সহজেই ভূপাতিত করতে পারবে। কারণ এই মিসাইল একবার লক্ষ্য স্থির করে ছুড়তে পারলে ৯৯ ভাগ সম্ভাবনা থাকে লক্ষ্যে আঘাত হানার।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: