অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৭ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৫ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী

আইসিটি রপ্তানি আয় বিলিয়ন ডলার ছাড়াবে: জয়

Print

অনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রীর তথ্য এবং যোগাযোগ প্রযুক্তিবিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় দৃঢ় আশা প্রকাশ করে বলেছেন, বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং (বিপিও) সেক্টরে ২০২১ সাল থেকে প্রতি বছর দু’লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে। ২০১৮ সালের মধ্যে এ খাতে রপ্তানি আয় এক বিলিয়ন ডলার ছাড়াবে। তিনি গতকাল ঢাকায় দুদিনের বিপিও সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একথা বলেন। সোনারগাঁও হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে জয় বলেন, আজকের বিপিও শিল্প ২০২১ সালের মধ্যে প্রতি বছর সর্বোচ্চ সংখ্যক কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে। এই সুযোগ লুফে নিতে সরকারি ও বেসরকারি উভয় সেক্টর সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাতে পারে। তিনি বলেন, আমরা প্রতি বছর বাংলাদেশে দুলাখ বিপিও চাকরি সুযোগ সৃষ্টি করবো।
আইসিটি অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ কল সেন্টার এসোসিয়েশন ও আউটসোর্সিং (বিএসিসিও)-এর সহযোগিতায় আইসিটির উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান ইমরান আহমেদ এবং আইসিটি সচিব শ্যামসুন্দর শিকদার। জয় বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর কোনো স্বপ্ন নয়। দেশের মোট জনগোষ্ঠীর ৬৫ ভাগই তরুণ এবং প্রতি বছর দেশে ১০ হাজার কম্পিউটার বিজ্ঞান গ্রাজুয়েট হচ্ছে। আমাদের অনেক কম্পিউটার বিজ্ঞান গ্রাজুয়েট গুগল, ফেসবুক ও মাইক্রোসফটে যোগ দিচ্ছেন। তাদের যোগ্যতা আন্তর্জাতিক মানের চেয়ে কম নয়। তিনি স্থানীয় শিল্পে বিশেষ করে বিপিও শিল্পের জন্য বর্তমান সরকারের সহায়তা প্রদানের উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশ সরকারের বাষির্ক আইসিটি ব্যয় ইতিমধ্যেই এক বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়ে গেছে। তিনি বলেন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এবং স্থানীয় সরকারসহ দেশের অনেক সংস্থা স্থানীয় কোম্পানিতে আউটসোর্সিং করছে। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটিবিষয়ক উপদেষ্টা জয় আইসিটি সেক্টরে সরকারের সফলতার বর্ণনা দিয়ে বলেন, সুন্দরবনসহ দেশের একশত ভাগ লোক এখন মোবাইল নেটওয়ার্কের আওতায় এসেছে। দেশের সকল জনগণ আইসিটি বিশেষ করে মোবাইল ব্যবহার করে তাদের দৈনন্দিন জীবনকে আরো সহজলভ্য করেছে। বাংলাদেশের যেকোনো প্রান্ত থেকে এখন যে কেউ মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলাফল জানতে পারছেন। তারা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে বাস টিকিট কিনতে পারছেন। এমনকি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা তথ্য জানতে পারছেন। তিনি বলেন, দেশ ২০২১ সালের ভেতরে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হচ্ছে। বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশ ভারত ও শ্রীলংকাসহ দক্ষিণ এশিয়ার সকল দেশের চেয়ে অনেক আর্থ-সামাজিক সূচকে উল্লেখযোগ্য সাফল্য অর্জন করেছে। তিনি বলেন, সরকার বিপিও শিল্পকে সহায়তা দিতে এবং আইটি বিশেষজ্ঞ সরবরাহ করতে সারা দেশে ১০টি আইটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ নিয়েছে। বিপিও খাতে প্রবৃদ্ধি প্রায় শতভাগ জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বিপিও থেকে আমরা ১৮০ মিলিয়ন ডলার আয় করছি। ২০২১ সালের মধ্যে আইসিটি খাত থেকে ৫ বিলিয়ন ডলার আয়ের যে লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে সরকার কাজ করছে তার মধ্যে শুধু বিপিও খাত থেকেই এক বিলিয়ন ডলার আয় করার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) অধিদপ্তর এবং বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করেছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: