অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই জমাদিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

উড়তে থাকা অ্যাটলেটিকোকে মাটিতে নামাল রিয়াল

Print

স্পোর্টস ডেস্ক: শেষ ম্যাচে ছন্দময় ফুটবলে ২-০ গোলে জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। এতে গ্যালাকটিকোদের নিশ্চিত হয় চ্যাম্পিয়নস লীগের শেষ ষোলোর টিকিট। আগের ম্যাচের পারফরমেন্স ধরে রেখে জিনেদিন জিদানের দল মাটিতে নামাল উড়তে থাকা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে। শনিবার রাতে মাদ্রিদ ডার্বিতে ২-০ গোলে জিতেছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। লা লিগায় ২৬ ম্যাচ পর হারল অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। এর আগে লীগে তাদের শেষ হারটি ছিল নগরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের বিপক্ষেই। গত ১লা ফেব্রুয়ারির ডার্বিতে রিয়াল জিতেছিল ১-০ গোলে।

রিয়ালের ঘরের মাঠে হারের আগে রীতিমতো উড়ছিল ডিয়েগো সিমিওনের দল। লা লিগায় চলতি মৌসুমে আগের ১০ ম্যাচে হার নেই একটিও।

জিতেছে বার্সেলোনার বিপক্ষেও। চার বছর ধরে মাদ্রিদ ডার্বি না জেতা অ্যাটলেটিকো আবারো ব্যর্থ। আলফ্রেডো ডি স্টেফানো স্টেডিয়ামে প্রথম থেকেই ছন্দময় ফুটবল খেলতে থাকে রিয়াল মাদ্রিদ। শুরুর ১০ মিনিটে রিয়াল ভালো সুযোগ তৈরি করেছিল। অ্যাটলেটিকো গোলরক্ষক ইয়ান ওবলাকের দৃঢ়তায় গোলবঞ্চিত রিয়াল। পঞ্চদশ মিনিটে কর্ণার থেকে গোল পায় স্বাগতিকরা। টনি ক্রুসের নেয়া কর্ণারে মাথা ছুঁইয়ে বল জালে পাঠান অরক্ষিত ক্যাসেমিরো। চলতি মৌসুমে সেটপিস থেকে প্রথম গোল হজম করলো অ্যাটলেটিকো। সফরকারীরা প্রথমার্ধের শেষ দিকে আক্রমণের গতি বাড়ায়। তবে বিরতির আগে রিয়ালের গোলমুখে নিতে পারেনি কোন শট।

৫৫তম মিনিটে সমতা ফেরানোর দারুণ সুযোগ পায় অ্যাটলেটিকো। ফরাসি ফরোয়ার্ড তুমা লিমাঁ ছোট ডি-বক্সের কাছ থেকে বল মারেন সাইড নেটে। ৬৩ মিনিটে দানি কারভাহালের নৈপুণ্য আর ভাগ্যের ছোঁয়ায় ব্যবধান বাড়ায় রিয়াল। টনি ক্রুসের নেয়া ফ্রিকিক অ্যাটলেটিকো রক্ষণ ক্লিয়ার করলেও বল পেয়ে যান কারভাহাল। স্প্যানিশ ডিফেন্ডার বুক দিয়ে নামিয়ে গোলমুখে জোরালো শট নেন। পোস্টে লেগে বল ফেরার পথে ওবলাকের গায়ে লেগে বল জালে জড়ায়।

১২ ম্যাচে সপ্তম জয়ে তালিকার তৃতীয় স্থানে উঠে এলো রিয়াল মাদ্রিদ। আসরের সফলতম দলটির সংগ্রহ ২৩ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলা শীর্ষে থাকা অ্যাটলেটিকোর পয়েন্ট ২৬।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: