অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৯ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী

কুলিয়ারচরে ইমামকে শ্বাসরোধে হত্যা

Print

কুলিয়ারচর প্রতিনিধি: কিশোরগঞ্জের কুলিয়ারচরে হাফেজ মো. মিজানুর রহমান খোকন (৩০) নামে এক ইমামকে শ্বাসরোধে হত্যার পর লাশ বস্তাবন্দি করে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে দুর্বৃত্তরা। গতকাল ভোর রাতে উপজেলার উছমানপুর ইউনিয়নের কোনাপাড়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলার বৌলাই গ্রামের হাফেজ মো. মিজানুর রহমান ৫ বছর যাবৎ কুলিয়ারচর উপজেলার উছমানপুর ইউনিয়নের কোনাপাড়া গ্রামের নূরচাঁন মেম্বারের বাড়ি সংলগ্ন ছাবেদ আলী ভূঁইয়ার বাড়ির সামনে এক পাঞ্জেগানা মসজিদের ইমাম হিসেবে কাজ করে আসছেন। রাতে ঘুমান ওই মসজিদের বারান্দায়। গতকাল ভোর সাড়ে ৩টার দিকে কোনাপাড়া বিলপাড় দিয়ে অজ্ঞাত এক ব্যক্তি একটি বস্তা মাথায় নিয়ে জমির মধ্য দিয়ে যাওয়ার সময় স্থানীয় লোকজন দেখে চোর চোর বলে চিৎকার করতে থাকলে ওই ব্যক্তি বস্তা ফেলে দৌড়ে পালিয়ে যায়। অপর অজ্ঞাত ১ ব্যক্তি স্থানীয় আমিনুলের বাড়ির পাশ দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় লোকজন তাকেও ধাওয়া দিলে সে মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে কুলিয়ারচর থানা পুলিশ কোনাপাড়া বিলপাড় থেকে ইমাম মো. মিজানুর রহমানের হাত-পা বাঁধা বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে। নিহত মিজানুর রহমানের গলায়, হাতে, পায়ে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ সময় থানা পুলিশ দুর্বৃত্তদের ফেলে যাওয়া নাম্বার বিহীন একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে উছমানপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিজাম ক্বারী বলেন, উছমানপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. স্বপন মিয়া অপর একজনকে সঙ্গে নিয়ে শোক দিবসের কাঙালি ভোজের কাজ শেষ করে বাড়ি ফেরার পথে কোনাপাড়া বিলপাড় দিয়ে অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে মাথায় বস্তা নিয়ে যেতে দেখে চোর সন্দেহে ডাক-চিৎকার দিলে ওই ব্যক্তি বস্তা ফেলে দৌড়ে চলে যায়। এ সময় অপর এক অজ্ঞাত ব্যক্তি ওই এলাকা দিয়ে মোটরসাইকেল নিয়ে যাওয়ার সময় জনতার ধাওয়ায় মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যায়। স্থানীয়দের সহায়তায় বস্তার মুখ খুলে ওই ইমামের লাশ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেয়া হয়। এ ব্যাপারে কুলিয়ারচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চৌধুরী মিজানুজ্জামান ইমাম খুনের ঘটনার কথা স্বীকার করে বলেন, ওই লাশের শরীরে বিভিন্ন স্থানে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এই ঘটনায় মামলার প্রক্রিয়া চলছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: