অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১লা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৮ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী

কৃষককে যথাযথ সম্মান দিতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

Print

অনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, কৃষির উন্নয়নে সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। এ সময় সব ছাত্রছাত্রীকে মাঠে যেতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী বলেন, শিক্ষাকার্যক্রমের ‍আওতায় ছাত্রছাত্রীদের কৃষি মাঠে নিয়ে যাওয়া উচিত, এ জন্য যদি স্কুল-কলেজে অতিরিক্ত নম্বরের ব্যবস্থাও করা লাগে তবে সেটি করতে হবে।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) বিকেলে কৃষক লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এক সভায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

’৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে আওয়ামী লীগ কৃষি বিষয়ক সুপরিকল্পনা গড়ে তুলে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তখন থেকেই আমরা সঠিক কৃষিবান্ধব ব্যবস্থা নিয়েছি। একটি বাড়ি একটি খামার করেছি আমরা। দীর্ঘ দিন গবেষণা করে এটি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। যার পাইলট প্রকল্প ছিল গাজীপুরের শ্রীপুরে। তবে ২০০১ সালে সবই ধ্বংস করে দিলো বিএনপি-জামায়াত।

শেখ হাসিনা বলেন, শুধু ঘরে বসে মজার মজার ফল, খাদ্য খেলেই হবে না। জানতে হবে কোন ফসল কী করে হয়, কেমন করে জন্মায়। আমাদের নতুন প্রজন্ম এ বিষয়ে জানলেই আগামীতে আরও কৃষি উন্নতি সম্ভব। আমরা চাই কৃষকের প্রতি সবার সম্মান জন্মাবে। তবে এখন দেখা যায় কৃষকের ছেলে পড়াশোনা শিখে কৃষক হতে চায় না, কোনো কোনো সময় তো বাবার পরিচয়ও দিতে চায় না সে ছেলে। এটি যেন না হয় সে জন্য কৃষককে তার যথাযথ সম্মান দিতে হবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা কৃষি উপকরণ কার্ড দিয়েছি, যা ২ কোটি কৃষক পাচ্ছেন। এছাড়া দেওয়া হচ্ছে ১০ টাকায় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট সুবিধা, যা ১ কোটি কৃষক পাচ্ছেন। আমরা দেশি মাছের উত্পাদন বৃদ্ধিতে গবেষণা চালু করি- এর পরিপ্রেক্ষিতে আমরা মিঠা পানির মাছ উত্পাদনে চতুর্থ স্থান নিয়েছি এখন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্য আয় এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশ করবো আমরা। এ জন্য চাই কৃষির আরও উন্নতি সাধন। এছাড়া ২০২০ সালে জাতির জনকের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করবো। আশা করছি তখনই প্রায় এক বছর আগে বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: