অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে সফর, ১৪৪৩ হিজরী

ক্ষমতা পরিবর্তনের জন্য জাতীয় পার্টিকে ভোট দিন : এরশাদ

Print

মঠবাড়িয়া (পিরোজপুর) প্রতিনিধি : জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, নূর হোসেন ও ডা. মিলন হত্যায় দোষী হলে যে বিচার হবে, তা মাথা পেতে নেব। আমি ক্ষমতা ছাড়ার পর আওয়ামী লীগ ও বিএনপি ক্ষমতায় ছিল। কেন তারা এ হত্যার বিচার করেনি? কারা নূর হোসেন ও মিলনকে হত্যা করেছে- তা সবাই জানে।

তিনি মঙ্গলবার মঠবাড়িয়া উপজেলা জাতীয় পার্টির উদ্যোগে আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির ভাষণে এসব কথা বলেন। স্থানীয় শহীদ মোস্তফা খেলার মাঠে এ জনসভা অনুষ্ঠিত হয়।

এরশাদ আরও বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দেশের জন্য নিরাপদ নয়। ক্ষমতা পরিবর্তনের জন্য জাতীয় পার্টিকে ভোট দিন, ক্ষমতায় আনুন। আমরা ক্ষমতায় এলে জনগণ নিরাপদে থাকে ও দেশের উন্নয়ন হয়। জাতীয় পার্টি মানুষ পোড়ানো বা প্রতিহিংসার রাজনীতি করে না। তিনি বলেন, বড় আশা করে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতা এনেছিলাম। কিন্তু প্রতিদানে কিছুই পাইনি। আওয়ামী লীগ-বিএনপি কেউই আমাদের বন্ধু নয়; জনগণই আমাদের বন্ধু।

তিনি বলেন, মঠবাড়িয়া আসায় স্থানীয় আওয়ামী লীগের আমাকে স্বাগত জানানো উচিত ছিল। কিন্তু তারা তা না করে সভায় আসা লোকজনকে পথে পথে বাধা দেওয়া, গাড়ি ভাংচুর ও মারধর করা হয়েছে। এটা দুঃখজনক। এর রেশ আগামী নির্বাচনে জোট গঠন ও সরকার গঠনে পড়বে বলে তিনি জানান।

উপজেলা জাতীয় পার্টি সভাপতি নাজমুল আহসান কবিরের সভাপতিত্বে জনসভায় বক্তব্য দেন পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য বন ও পরিবেশমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু, স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী কাজী ফিরোজ রশিদ এবং জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. রুস্তম আলী ফরাজী, খুলনা জেলা জাতীয় পার্টি সভাপতি শফিকুল ইসলাম মধু প্রমুখ।

জনসভায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পার্টিতে সদ্য ফেরা ডা. রুস্তমকে লাঙ্গলে ভোট দিয়ে আবারও সংসদ সদস্য নির্বাচিত করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি- কেউই জাতীয় পার্টির সমর্থন ছাড়া আগামীতে সরকার গঠন করতে পারবে না। তিনি বলেন, মানুষ পরিবর্তন চায়। জাতীয় পার্টি পরিবর্তনের রাজনীতি করে। আর জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় না আনা পর্যন্ত আমি নিজেকে বৃদ্ধ বলে মনে করি না।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: