অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৪ই সফর, ১৪৪৩ হিজরী

টাকা দিতে না পারায় তুলে নেয়া হলো স্ত্রীকে

Print

অনলাইন ডেস্ক : ২২ হাজার টাকায় নিলামে এক নারীকে বিয়ে করেন এক যুবক। তবে বিয়ের সময় পুরো টাকা দিতে পারেননি। ১৫ হাজার নগদ এবং বাকি সাত হাজার টাকা পরে দেয়ার শর্তে বিয়ে করেন তিনি। কিন্তু বিয়ে করার কয়েক দিন পর বাকি সাত হাজার টাকা পরিশোধ করতে না পারায় স্বামীর কাছ থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় স্ত্রীকে। এ ঘটনা মেনে নিতে পারেননি স্বামী মুকেশ। রাগ, ক্ষোভ ও হতাশায় আত্মহত্যা করেন। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের বাগপতের সুরুরপুর গ্রামে।

গণমাধ্যমের খবর, বাগপতে বেআইনিভাবে নিলামে তোলা হয় এক নারীকে। ২২ হাজার টাকার বিনিময়ে মেয়েটিকে বিক্রি করে দেয়ার চেষ্টা চালায় এক অসাধু ব্যক্তি। সেই দর কষাকষিতে অংশ নিয়ে ওই নারীকে বিয়ে করেন সুরুরপুরের বাসিন্দা মুকেশ। কিন্তু বিয়ের সময় কোনোভাবেই তিনি ২২ হাজার টাকা দিতে পারেননি। কিন্তু সেই টাকা দিতে না পারায় তার স্ত্রীকে তুলে নিয়ে যায় নিলামকারীরা। এর পরই আত্মহত্যার পথ বেছে নেন মুকেশ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: