অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৩ই জিলক্বদ, ১৪৪২ হিজরী

দাসত্বের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ঘোষণা তেরেসা মে’র

Print

অনলাইন ডেস্ক: আধুনিক দাসত্বের বর্বরোচিত চর্চা প্রতিহত করতে নতুন পদক্ষেপ নেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে। এ লক্ষ্যে আরো অর্থায়ন এবং বিভিন্ন দেশের সরকারের মধ্যে নতুন একটি টাস্কফোর্স গঠনের প্রতিশ্রæতি দেন তিনি। ২০১৫ সালের মর্ডান সেøভারি অ্যাক্টের পর্যালোচনা করার সময় রোববার এসব কথা বলেন তেরেসা। এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় এ আইনটি নিয়ে অগ্রণী ভ‚মিকা রেখেছিলেন তিনি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, ২০১৫ সালে বলপূর্বক শ্রমে ৪০ শতাংশেরও বেশি ভুক্তোভোগীকে শনাক্ত করা হয়েছে। বিচারের আওতায় আনা হয়েছে আরও ১৪ শতাংশকে। ২০১৬ সালের গেøাবাল সেøভারি ইনডেক্সের তথ্যমতে, সারা বিশ্বে প্রায় ৪ কোটি ৬০ লাম মানুষ দাসত্বের শিকার। এর মধ্যে আনুমানিক ১১ হাজার ৭শ ভুক্তোভোগী বৃটেনে রয়েছে। সানডে টেলিগ্রাফে প্রধানমন্ত্রী তেরেসা লিখেছেন, ভুক্তোভোগীরা বলপূর্বক শ্রমের অভিজ্ঞতা অমানুষিক আর বিভীষিকাময়। তিনি বলেন, ‘আমাদের সময়ে এটা সবচেয়ে বড় মানবাধিকার ইস্যু। বিশ্বকে এই বর্বর কর্মকাÐ থেকে মুক্ত করতে আমরা এটাকে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মিশনে পরিণত করব। প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এ বিষয়ে আমি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ।’ আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা আএলওর হিসাব অনুযায়ী বছরে বলপূর্বক শ্রম থেকে বিশ্ব উপার্জন করে প্রায় ১৫ হাজার কোটি ডলার। বলপূর্বক শ্রমের মাধ্যমে এই আয়ের বেশির ভাগই আসে এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চল, ইউরোপিয়ান ইউনিয়নসহ উন্নয়নশীল অর্থনীতির দেশ থেকে। এ মাসের শুরুতে বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব নেয়া তেরেসা আরাও জানান, নাইজেরিয়াসহ বেশ কিছু দেশ থেকে পাচার হয়ে বিপুলসংখ্যক মানুষ বৃটেনে পৌঁছায়। এমন সব দেশে এই সমস্যা মোকাবিলায় বৈদেশিক সহায়তা বিষয়ক ৩ কোটি ৩৫ লাখ পাউন্ডের একটি তহবিল ব্যয় করা হবে ৫ বছর মেয়াদে। তেরেসা মে আরও বলেছেন তিনি এ বিষয়ে একটি টাস্কফোর্স গঠন করবেন। যাতে নিয়মিত সমন্বয় ও অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা করা যায়। দ্য মডার্ন সেøভারি অ্যাক্টের অধীনে সংশ্লিষ্টদের প্রকাশ করতে হবে যে, তারা তাদের সরবরাহ চেইন শ্রমদাস থেকে মুক্ত রাখা নিশ্চিত করতে কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে। এক্ষেত্রে জড়িতদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি ধারায় কঠোর শাস্তির কথা বলা হয়েছে। এ আইনটি প্রবর্তিত হওয়ার এক বছর পরে ২০১৫ সালে ২৮৯টি শ্রম দাস বিষয়ক অপরাধের রিভিউ হয়েছে। ২০১৪ সালে এ সংখ্যা ছিল ২৫৩।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: