অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৭ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

ধর্ষণবিরোধী মিছিলে পুলিশের বাঁধা

Print

স্টাফ রিপোর্টার : দেশব্যাপী চলমান ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে ছাত্র ইউনিয়নের কালো পতাকা মিছিলে বাঁধা দিয়েছে পুলিশ। এসময় পুলিশের সাথে আন্দোলনকারীদের হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে। এই বাঁধার পর স্বরাস্ত্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেছেন আন্দোলনকারীরা।

জানা যায়, মঙ্গলবার(৬ অক্টোবর) বেলা ১২টার দিকে ছাত্র ইউনিয়ন সংগঠনের শিক্ষার্থীরা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে কালো পতাকা মিছিল করতে শাহবাগ জাদুঘরের সামনে জড়ো হতে শুরু করেন। সেখানে তারা মোটামুটি ১ ঘণ্টা অবস্থান নেন। পরে দুপুর ১ টার দিকে তারা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় অভিমুখে যাত্রা শুরু করেন। সেসময় পুলিশ তাদের হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালের সামনে ব্যারিকেড দিয়ে আটকে দেয়। মিছিলকারীরা এগিয়ে গিয়ে ব্যারিকেড ভাঙ্গার চেষ্টা করলে পুলিশ আন্দোলনকারীদের উপর চড়াও হয়। পুলিশের লাঠির আঘাতে ৪ আন্দোলনকারী আহত হন। তাদের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হন।

ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল অভিযোগ করে বলেন, ‘আমাদের ১০ জনের বেশি আহত হয়েছে। তারা পিজি (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের ইমার্জেন্সিতে চিকিৎসা নিয়েছেন।’
তিনি বলেন, ‘এখানে সবচেয়ে ন্যাক্কারজনক হলো মেয়ে পুলিশ পেছনে ছিলেন। আমাদের মিছিলে নারীরা সামনে ছিলেন। কিন্তু নারী পুলিশ ছিলেন পেছনের দিকে। পুরুষ পুলিশরা নারীদের ওপর হামলা করেছেন।’

তবে, রমনা জোনের ডিসি মো. সাজ্জাদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, তারা দৌড় দিয়ে এসে ব্যারিকেড ভেঙে পুলিশের ওপর হামলা করেছে। তাদের হাতে যে প্লেকার্ড ছিল কালো পতাকাবাহী এসব পুলিশের ওপর ছোড়ে মেরেছে। পুলিশ অসীম ধৈর্যের পরিচয় দিয়ে ব্যারিকেডের উল্টা দিক থেকে শুধু ব্যারিকেডটা ধরে রেখেছি। তারা নিজেদের দিকে টেনে নিয়ে এগুলো ভেঙে ফেলেছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: