অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৪ঠা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৭ই জিলক্বদ, ১৪৪২ হিজরী

প্রধান শিক্ষককে মারধর করলেন বাবলা

Print

অনলাইন ডেস্ক: স্কুল কমিটি নিয়ে দ্বন্দের জের ধরে সদলবলে বিদ্যালয়ে ঢুকে প্রধান শিক্ষককে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে ঢাকা-৪ আসনের জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার বিরুদ্ধে।

আজ সোমবার দুপুরে তিনি শ্যামপুর থানার দোলাইরপাড় স্কুল ও কলেজে ঢুকে এ ঘটনা ঘটান। খবর বিডি নিউজের।

‘জয় বাংলা’ স্লোগান দিয়ে এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন বলে অভিযোগ তুলেছেন ওই এলাকায় সাবেক সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের সানজিদা খানম। তবে বাবলা তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে বলেছেন, ওই বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদ গঠন নিয়ে প্রশ্ন উঠায় তিনি প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলতে গিয়েছিলেন।

জাতীয় পার্টির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বাবলার সঙ্গে ওই বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলামও ছিলেন। তিনিও শিক্ষককে মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করেন।

স্থানীয়রা জানান, দোলাইরপাড় স্কুল ও কলেজের পরিচালনা পর্ষদে সভাপতি পদে আছেন সানজিদা খানম। এখন ওই পদটি পেতে চাইছেন বাবলা।

প্রধান শিক্ষক আতাউর অভিযোগ করে বলেন, ‘এমপি (বাবলা) দস্যুর মতো দলবল নিয়ে আমার রুমে প্রবেশ করে। এরপর তার উপস্থিতিতে ম্যানেজিং কমিটির সাবেক সভাপতি নজরুল ইসলাম আমার কলার চেপে ধরেন। অন্যরা আমার মাথায়, মুখে, ঘাড়ে কিল-ঘুষি মারতে থাকে।’

সানজিদা খানম বলেন, “বাবলা ও তার সমর্থকরা ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষককে মারধর করে মেরে ফেলার হুমকি দেয়। তারা স্যাবেটাজ করার জন্য জয় বাংলা বলে স্লোগানও দিচ্ছিল।

“ঘটনাটি জানতে পেরে পুলিশ নিয়ে সেখানে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ওই শিক্ষককে (মুক্ত করি।”

শ্যামপুর থানার ওসি আবদুর রাজ্জাক জানান, “স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির বিরোধের জের ধরে সামান্য ঝামেলা হয়েছিল। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।”




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: