অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৩০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২রা জিলক্বদ, ১৪৪২ হিজরী

বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগে সৌদি নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার

Print

অনলাইন ডেস্ক: বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করেছে সৌদি আরব। বুধবার সেখানকার শ্রম ও সমাজ কল্যাণবিষয়ক মন্ত্রণালয় এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আরব নিউজ। এতে বলা হয়, শুধু গৃহকর্মী ছাড়া বাংলাদেশি সব রকম শ্রমিক নিয়োগের ওপর গত ৬ বছর ধরে নিষেধাজ্ঞা ছিল। তা প্রত্যাহার করায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন সৌদি আরবে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ। তিনি বলেছেন, এটা বাংলাদেশের সব শ্রমিকের জন্য একটি সুখবর। তিনি বলেছেন, জুনে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পবিত্র দুই মসজিদের রক্ষক বাদশা সালমানের মধ্যে এ বিষয়ে আলোচনা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশের সব শ্রেণির শ্রমিকের সৌদি আরবে যাওয়ার পথ উন্মুক্ত হয়েছে। দক্ষ, অদক্ষ, ডাক্তার, নার্স, শিক্ষক, কৃষিকাজ, নির্মাণ শ্রমিকসহ সব পেশার মানুষ এখন কাজ নিয়ে সৌদি আরবে যেতে পারবেন। গোলাম মসীহ বলেন, সুসময় ও দুঃসময় সব ক্ষেত্রেই বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে সৌদি আরব। তাই আমরা শ্রমিক নেয়া অনুমোদন দেয়ায় বাদশাহ সালমানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। উল্লেখ্য, বর্তমানে সৌদি আরবে ১৩ লাখ বাংলাদেশি শ্রমিক আছেন। এর মধ্যে প্রায় ৬০ হাজার হলেন নারী গৃহকর্মী। রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ বলেছেন, পুরুষ গৃহকর্মীদের জন্য ভিসা দেয়া শুরু হয়েছে জুন থেকে। নিয়মিত সৌদি আরবে যাওয়া বাংলাদেশির সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। গড়ে প্রতিমাসে ৬ হাজার নারীশ্রমিক সৌদি আরবে যাচ্ছেন। সৌদি আরবের বিভিন্ন ক্ষেত্রে বর্তমানে ৪৮টি ক্যাটেগরিতে আমাদের শ্রমিকরা কাজ করছেন। গত জানুয়ারিতে সৌদি আরবের শ্রমমন্ত্রী মুফরেজ আল হাকাবানি ও বাংলাদেশের বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নূরুল ইসলাম বাংলাদেশি আয়ার সংখ্যা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেন। তারা অভিবাসন বিষয়ক খরচ কমানো, শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ ও পারস্পরিক সুযোগ-সুবিধার বিষয় মাথায় রেখে পুরুষ শ্রমিক নিয়োগের ওপর জোর দেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: