অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

বিএনপি-জামায়াতের চেয়ে ভয়ঙ্কর অতিভক্ত আওয়ামী লীগাররা :নাসিম

Print

দৈনিক চিত্র প্রতিবেদক:
আওয়ামী লীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র ও খাদ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ নাসিম এমপি বলেছেন, বিএনপি-জামায়াত হলো ভয়ঙ্কর। আরো ভয়ঙ্কর অতিভক্ত আওয়ামী লীগাররা। সোমবার রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু একাডেমি আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, এখন সবাই আওয়ামী লীগার হয়ে গেছেন। যেদিকে তাকাই শুধু আওয়ামী লীগ। তবে অতিভক্তি ও অতি উৎসাহী আওয়ামী লীগাররা নিয়ে বেশি ভয় হয়। পঁচাত্তরের ১৫ আগস্টের আগেও মনে হচ্ছিল সবাই আওয়ামী লীগার। বাকশাল ও আওয়ামী লীগ ছাড়া যেন আর কিছুই নেই। কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে নির্মমভাবে হত্যার পর অনেকেরই খুঁজে পাওয়া যায়নি। তাই এখন বিএনপি-জামায়াতের চেয়ে অতিভক্ত আওয়ামী লীগারদের নিয়ে বেশি ভয়।

খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি না করতে বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়ে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে অত্যাধুনিক চিকিত্সা সেবা প্রদান করা হয়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গুরুতর অসুস্থ হয়ে এই হাসপাতালে ভর্তি হন এবং চিকিত্সকরা সুস্থ করে তোলেন। উপমহাদেশের প্রখ্যাত হূদরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. দেবী শেঠিও বলেছেন, ওবায়দুল কাদেরকে সঠিক ও সর্বোচ্চ চিকিত্সা বিএসএমএমইউয়েদেওয়া হয়েছে। তাহলে খালেদা জিয়া কেন এই হাসপাতালে চিকিত্সা নেবেন না? বিএসএমএমইউয়ের চিকিত্সকদের ওপর আস্থা রাখুন। মোহাম্মদ নাসিম বলেন, দক্ষ নেতৃত্বের মাধ্যমে দেশকে সার্বিকভাবে দ্রুত এগিয়ে নিয়ে সারা দুনিয়ার মন জয় করেছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাঙালির হূদয় থেকে কেউ মুছে ফেলতে পারবে না। বঙ্গবন্ধুকে যারা ছোট করতে চেয়েছেন তারা নিজেরাই আঁস্তাকুড়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছে।

বঙ্গবন্ধু একাডেমির সভাপতি আলহাজ নাজমুল হকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দিলীপ রায়, কৃষক লীগ নেতা এম এ করিম, বঙ্গবন্ধু একাডেমির হুমায়ুন কবির মিজি প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.