অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৫ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী

বিশ্বের শীর্ষ ধনীর দৌড়ে প্রথম ইলন মাস্ক

Print

অনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রধান নির্বাহী জেফ বেজোসকে পেছনে ফেলে বিশ্বের শীর্ষ ধনীর স্থান দখল করেছেন টেসলা এবং স্পেসএক্সের প্রতিষ্ঠাতা ইলন মাস্ক। সিএনবিসিতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন অনুযায়ী মাস্কের সম্পদের পরিমাণ ১৮ হাজার ৫০০ কোটি ডলার। অন্যদিকে জেফ বেজোস শীর্ষ ধনীর তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছেন। বৃহস্পতিবার পুঁজিবাজারে টেসলার শেয়ারের দাম বেড়ে যাওয়ায় মাস্ক তালিকায় শীর্ষে উঠে আসেন। এরই মধ্যে দিয়ে নতুন বছরে নতুন শীর্ষ ধনী ব্যক্তি পেলো বিশ্ব। এ খবর দিয়েছে ব্লুমবার্গ এবং অনলাইন বিবিসি।

 

২০১৭ সাল থেকে বিশ্বের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি ছিলেন জেফ বেজোস। তার বর্তমান সম্পদের পরিমাণ ১৮ হাজার ৪০০ কোটি ডলার। ব্লুমবার্গের বিলিয়নেয়ারস সূচক অনুসারে টেসলার শেয়ারমূল্য ৪.৮ শতাংশ হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।
আর এই পরিমাণ বৃদ্ধি মাস্ককে শীর্ষ স্থানে নিয়ে আসার জন্য যথেষ্ঠ ছিলো। বিদায়ী বছরে মাস্কের সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে ১৬০ বিলিয়ন ডলার। টেসলার ইলেকট্রিক গাড়ির চাহিদাই এই সম্পদ বৃদ্ধির অন্যতম কারণ। কিন্তু মাত্র দেড় বছর আগেও টেসলার শেয়ারের মূল্য কমে যাওয়াতে বড় ধরনের লোকসানে পড়তে হয়েছিল মাস্ককে। এর ফলে আইনি ও নিয়ন্ত্রকদের পক্ষ থেকে তার নেতৃত্ব নিয়েও প্রশ্নবিদ্ধ হতে হয়েছিলো।

 

অন্যদিকে, সদ্য সাবেক হয়ে যাওয়া শীর্ষ ধনী জেফ বেজোসেরও সম্পদের পরিমাণ করোনা মহামারির জন্য বেড়েছে। মহামারিতে অ্যামাজন অনলাইন স্টোর ও ক্লাউড কম্পিউটিং খাত থেকে আগের চেয়ে বেশি লাভবান হয়েছে বেজোস। তবে বেজোসের সাবেক স্ত্রী ম্যাকেনজি স্কটের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর ব্যবসায়ের ৪ শতাংশ দিয়ে দেয়াটা তার ব্যক্তিগত সম্পদে খানিকটা প্রভাব ফেলেছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: