অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে সফর, ১৪৪৩ হিজরী

ভুয়া পরিচয়পত্র ও তথ্য দিয়ে বাসা ভাড়া নিচ্ছে জঙ্গিরা

Print

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীতে জঙ্গি ও অপরাধী শনাক্তে ভাড়াটিয়ার জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহের উদ্যোগ বিশেষ কোনো কাজে আসছে না বলে সংশ্লিষ্ট বিষয়ের বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ধারাবাহিক অভিযানে কোণঠাসা হয়ে পড়া সক্রিয় জঙ্গি সংগঠনগুলোর সদস্যরা এখনও ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে বাসা ভাড়া নিচ্ছে। তারা শুধু বাসা ভাড়া নেওয়ার জন্যই জাতীয় পরিচয়পত্র ব্যবহার করছে না, চাকরির নিয়োগপত্র বা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পরিচয়পত্র বানিয়ে বাড়িওয়ালাদের ধোঁকা দিচ্ছে।

জানা গেছে, রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে চাইলেই পুরনো জাতীয় পরিচয়পত্র বানানো যাচ্ছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বাসা ভাড়া দেওয়ার ক্ষেত্রে ভাড়াটিয়ার কাছ থেকে জাতীয় পরিচয়পত্র সংগ্রহের পাশাপাশি আরো কিছু বিষয়ে তারা জোর দিয়েছেন। আর ভাড়াটিয়ার বিষয়ে যে ডিজিটাল তথ্যভাÐার করা হচ্ছে, তা শেষ হলে ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র শনাক্ত করাও সহজ হবে। ভাড়াটিয়ার কাছ থেকে জাতীয় পরিচয় নেওয়ার পাশাপাশি আরো কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, যা সন্দেহভাজন জঙ্গি বা অপরাধীদের বিষয়ে পুলিশকে তথ্য দিতে পারবে।

ডিএমপির উপকমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘ইতোমধ্যে প্রায় ২০ লাখেরও বেশি ভাড়াটিয়ার তথ্য সংরক্ষণ করা হয়েছে। এই তথ্যের মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের তথ্যও রয়েছে। একইসঙ্গে পুলিশের পক্ষ থেকে উঠান বৈঠকের মাধ্যমে বাড়িওয়ালাদের সচেতন করা হচ্ছে। জঙ্গি বা অপরাধীদের লক্ষণ কী হতে পারে সেসব বিষয়ে বলা হচ্ছে। ফলে এর ইতিবাচক ফল পাওয়া যাবে বলে জানান তিনি।

সূত্র জানায়, জঙ্গিরা এখনও ভুয়া পরিচয় দিয়ে বাসা ভাড়া নিয়ে অবস্থান করছে। তবে এ ক্ষেত্রে আগের চেয়ে অনেক বেশি সতর্কতা অবলম্বন করছে বাড়ির মালিকগণ। বিশেষ করে ভাড়াটিয়া ফরম পূরণ এবং জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়ার ক্ষেত্রে তারা কৌশল অবলম্বন করছে। ভুয়া পরিচয়পত্র তৈরি করে ভাড়াটিয়া ফরমে ভুল তথ্যও সংযোজন করছে অপরাধীরা। আর অভিভাবক হিসেবে এমন লোকজনের নাম বা মোবাইল নম্বর দিচ্ছে, তারা জঙ্গি সংগঠনেরই সদস্য। র‌্যাব-পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিভিন্ন অভিযানে জঙ্গিদের ভুয়া জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে বাসা ভাড়া নেওয়ার অনেক তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। গত ১২ জানুয়ারি রাজধানীর তেজগাঁও নাখালপাড়ার জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাব যে অভিযান চালায়, সেই বাড়িওয়ালার কাছ থেকে উদ্ধার করা জাতীয় পরিচয়পত্রগুলো ভুয়া প্রমাণিত হয়েছে বলে জানা গেছে।

বর্তমানে বাংলাদেশে নব্য জেএমবি ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিম বা আনসার আল ইসলাম নামের দ্ইু জঙ্গি সংগঠনের সদস্যরা তাদের সদস্যদের বাসা ভাড়া নেওয়ার ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করার নির্দেশ দিয়েছে। তারা বাড়িওয়ালার সঙ্গে সুন্দর সম্পর্ক তৈরি এবং ভুয়া যেসব কাগজপত্র তৈরি করা প্রয়োজন তা যেন একটির সঙ্গে আরেকটির মিল থাকে তেন নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

অপর একজন পুলিশ কর্মকর্তা জানান, বাড়িওয়ালাদের ভুয়া পরিচয়পত্রের বিষয়ে সজাগ থাকার পাশাপাশি ভাড়াটিয়া পেশাজীবী হলে প্রতিষ্ঠানে ফোন করে বা সশরীরে গিয়ে খোঁজ নেওয়া, কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় হলে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানে ফোন করে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। আর তাদের স্থায়ী ঠিকানা সংরক্ষণ এবং প্রয়োজনে স্থানীয় জনপ্রতিনিধির মোবাইল নম্বর নিয়ে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করতে পরামর্শ দিচ্ছেন। তাছাড়া বাড়ির ভাড়াটিয়াদের চলাফেরার বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখা, তারা প্রতিদিন কখন বাসা থেকে বের হচ্ছে, কখন ফিরছে, অপরিচিত লোকজনের যাতায়াত আছে কিনা, ভাড়াটিয়ারা প্রতিবেশীদের সঙ্গে মেশে কিনা এবং প্রয়োজনে ভাড়াটিয়ার বাসার অভ্যন্তরে প্রবেশ করে কোনো সন্দেহজনক বিষয়ে খোঁজ রাখার পরামর্শ দিচ্ছেন তারা।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: