অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২৮শে ভাদ্র, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা সফর, ১৪৪৩ হিজরী

মিষ্টি মারিয়ার মিষ্টি লেখনী কন্যা

Print

চিত্র প্রতিবেদন : জানতাম সে নৃত্যশিল্পী । পরে জানলাম অভিনেত্রী ।আরো পরে জানলাম সে উপস্থাপিকা । আজ দেখলাম,সব মিছে । মিষ্টি মারিয়ার কন্যা”র ভাষায়-“ আমি আইজ কিছু কথা কইতাম চাই সবাইরে। এমন কিছু হোনাইতে চাই ,যা এতদিন মনের মাঝে পুঁইথা রাখছিলাম–।”
সেই পুঁইথা রাখা কথামালা দিয়ে লেখা বইয়ের নাম কন্যা। রাজধানীর বই মেলা পেরিয়ে তা এখন রাজবাড়ীর বই মেলাগুলোর পাঠকের হাতে শোভা পাচ্ছে। নাড়া দিচ্ছে রাজবাড়ীর পাঠকদের হৃদয়ে। সেখানকার পাঠকদের অনুরোধে কেনা বেশ কিছু বই হাতে তুলে দিলো এক বন্ধু। জানতে চাইলাম,কি আছে এতে। বললো পড়ে দেখ।
রাত জেগে,জেগে পড়ে দেখলাম একজন আত্মবিশ্বাসী লেখিকার হৃদয় নিংরানো ভালোবাসা ঢেলে লেখা গল্পটি। গল্পটি গ্রামের আঞ্চলিক ভাষায় লেখা। আমি গ্রামের ছেলে, গ্রামের সাদামাটা আঞ্চলিক ভাষা এতো বলিষ্টভাবে প্রকাশ করা যায় তা কন্যা পড়ে প্রথম বুঝলাম। সত্যি মিষ্টি মারিয়ার নারী এক অনবদ্য সৃষ্টি।
আমাদের জেন্ডার বৈষম্য বইটিতে স্পষ্টই তুলে ধরা হয়েছে। তুলে ধরা হয়েছে,মা-মেয়ের সম্পর্ক,বাবার শাসন,আবার ভালবাসাও। পারিবারিক রাজনীতি আরো কত কি । পরীক্ষার পূর্বে মমতাময়ী মায়ের মৃত্যু বইটির পাঠক হৃদয়ে বেশ নাড়া দেয়। এসব অতিক্রম করে একটি মেয়ে এগিয়ে যাওয়ার সাহসী উদ্যোগ বইটির মুল বিষয় বস্তু।
আত্মবিশ্বাসী লেখকের সু চিন্তার এ ফসলের মোড়ক উন্মোচন করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ. ক. ম মোজাম্মেল হক । এটির প্রচ্ছদ ও প্রকাশ এর কাজ করেছেন দোয়েল প্রকাশনী। প্রথম বিক্রি শুরু হয়েছেঢাকার বই মেলায়। আমার বিশ্বাস এটি পড়লে ,পাঠক গ্রামের মানুষ,সমাজ ও জীবন সম্পর্কে এক স্পষ্ট এক ধারনা পাবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: