অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৩রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩রা রমযান, ১৪৪২ হিজরী

যাত্রাবাড়ীতে মাদ্রাসা ছাত্রদের সড়ক অবরোধ, র‍্যাব-পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ

Print

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে র‍্যাব ও পুলিশের সঙ্গে স্থানীয় মাদ্রাসা ছাত্রদের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় মাদ্রাসা শিক্ষার্থীরা সেখানকার রাস্তা অবরোধ করে রেখেছে। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রাবাড়ীর হানিফ ফ্লাইওভারের নিচে কুতুবখালী এলাকায় লাঠিসোটা হাতে অবস্থান নিয়েছেন মাদ্রাসার ছাত্ররা। কয়েকটি জায়গায় টায়ার জ্বালিয়ে রাস্তা অবরোধ করেন তারা।

 

আজ শুক্রবার বিকেল থেকেই ওই এলাকার সড়ক অবরোধ করে রেখেছিলেন শতাধিক মাদ্রাসা ছাত্র। তাদের সরিয়ে দিতে গেলে পুলিশ এবং র‍্যাবের সঙ্গে মাদ্রাসা ছাত্রদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে পুলিশের ৮-১০ সদস্য আহত হয়েছেন।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের যাত্রাবাড়ী অংশে রাত ৮টার দিকেও মাদ্রাসাছাত্রদের অবস্থান নিতে দেখা গেছে।পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অর্ধশত পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে।

 

যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম কাজল বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে হওয়া অনুষ্ঠানে অংশ নিতে বাংলাদেশে আসা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদে সন্ধ্যা থেকেই রাজধানীর যাত্রাবাড়ী কুতুবখালী মাদ্রাসার সামনে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করেন। এতে করে ওই এলাকায় ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। তবে অবরোধের আধা ঘন্টা পরই বিক্ষোভকারীদের সেখান থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। ঘটনাস্থলে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি।

 

এর আগে, আজ দুপুরে জুমার নামাজ শেষে নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের প্রতিবাদ করে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম এলাকায় মুসল্লি, ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মী ও পুলিশের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয়। মুসল্লিরা মোদিবিরোধী স্লোগান দেওয়ার কিছুক্ষণ পরই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মসজিদের উত্তর পাশের ফটকে মিছিলকারীদের ওপর লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালান। এতে বিক্ষোভকারীরা পিছু হটে মসজিদের ভেতরে ঢুকে পড়ে। কিছু সময় পর বিক্ষোভকারীরা ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের ওপর পাল্টা হামলা চালায়।

 

ওদিকে, জুমার নামাজ শুরুর আগে থেকেই মসজিদে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা অবস্থান নিয়েছিলেন। পুলিশ সদস্যদের পাশাপাশি তারাও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: