অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২৮শে আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৬ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী

রেমিট্যান্সে অর্থনীতি মজবুত হচ্ছে: প্রধানমন্ত্রী

Print

অনলাইন ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, প্রবাসীদের আয়েই দেশের অর্থনীতি মজবুত হচ্ছে।

জাপানের রাজধানী টোকিওর ইমপেরিয়াল হোটেলে সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশিদের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীকে দেওয়া ‘নাগরিক সংবর্ধনা’ অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে তিনি এ কথা জানান। জি-৭ সম্মেলনে অংশ নিতে প্রধানমন্ত্রীর জাপান সফরের শেষ দিন রোববার (২৯ মে) স্থানীয় সময় বিকেলে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রবাসীরা রেমিট্যান্স পাঠিয়ে দেশের অর্থনীতির চাকাকে গতিশীল রেখেছেন। তাদের আয়েই বাংলাদেশের অর্থনীতি ক্রমশ মজবুত হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী স্মরণ করেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পর এ দেশকে এমনভাবে চালানো হয়েছিল যে, তখন বাংলাদেশ মানেই দুর্যোগের দেশ, ভিক্ষুকের দেশ, গরিবের দেশ, হাত পেতে দেওয়ার দেশ বলে চিহ্নিত হতো।

বঙ্গবন্ধু কন্যা বলেন, আমরা জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ করেছি। আমরা বিজয়ী জাতি। আমরা মাথা উঁচু করে চলবো, আমাদের মাথা কেন নিচু থাকবে?

প্রধানমন্ত্রী দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, এখন সেই চিত্র পরিবর্তন হয়েছে। বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। এ দেশ এগিয়ে যাচ্ছে এবং এগিয়ে যাবেই।

শেখ হাসিনা বলেন, দেশকে অস্থিতিশীল করে তুলতে অনেক ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত চললেও আমাদের অর্থনৈতিক অগ্রগতি অব্যাহত আছে। আমাদের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭ শতাংশের ওপরে উন্নীত করেছি। রিজার্ভ বেড়েছে। বেড়েছে রফতানি। রফতানির জন্য নতুন নতুন পণ্য উত্পাদন করছি। আর্থ-সামাজিক ব্যবস্থার উন্নতি হয়েছে। আমাদের বিদ্যুত্ উত্পাদন ক্ষমতা এখন ১৪ হ‍াজার ৭০০ মেগাওয়াট। গত অর্থবছরে অনেক বড় বাজেট করেছি আমরা। সামনে আরও বড় বাজেট আসছে।

তিনি আরও বলেন, মেয়েরা যেন ব্যবসা করতে পারে সেজন্য বিশেষ সুবিধা থাকছে। বিদ্যুৎ-জ্বালানিসহ সব খাতে আমরা উন্নয়ন করেছি। ৮০ হাজার নিঃস্ব মানুষের ঘর-বাড়ি করে দিচ্ছি। প্রবাসী কল্যাণ ব্যাংক করেছি। খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করেছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা আর নিম্নে থাকতে পারি না। এবার কেবল ঊর্ধ্বে উঠবো। আমরা এটা পারবো, কারণ আমরা সততার সঙ্গে কাজ করছি। সেজন্য দেশকে এগিয়ে নিতে পারছি। আমাদের অর্থনীতি আগে কখনো এতো শক্তিশালী হয়নি।

প্রধানমন্ত্রী এসময় তার ভবিষ্যত্ উন্নয়ন পরিকল্পনার কথাও তুলে ধরেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: