অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী

লতা মুঙ্গেশকর কোনোদিন স্কুলে যাননি, পার্লারে গেছেন একদিন

Print

উপমহাদেশের সংগীতের কিংবদন্তি লতা মুঙ্গেশকর। কিন্তু বিস্ময়কর হলেও সত্যি, প্রাতিষ্ঠানিক কোনো পড়াশোনা নেই তার। জীবনে স্কুলে যাননি একদিনও। শিশুকালে পড়ালেখা শিখেছেন বাড়ির পরিচারকের কাছে। ব্যাস, ওই পর্যন্তই।

আজ সেই সুরসম্রাজ্ঞী লতা মুঙ্গেশকরের ৮৭তম জন্মদিন।

লতার আসল নাম হেমা। তার বাবা পণ্ডিত দীনানাথ মুঙ্গেশকর ছিলেন থিয়েটার অভিনেতা ও ক্লাসিকাল গায়ক। তার একটি নাটক ভাও বন্ধনের প্রধান চরিত্র লতিকা থেকে লতা নামটি আসে।

জীবনে একদিন বিউটি পার্লারে গেছেন লতা। ‘পহেলি মঙ্গলাগাউর’-ছবির সময় চুল ও ভ্রুর মেকআপ নিতে তাকে পার্লারে যেতে হয়েছিল। বিউটি পার্লার থেকে বেরিয়ে নিজেকে আয়নায় দেখে নাকি একেবারে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি।

অবসর কাটানোর জন্য লাস ভেগাস তার পছন্দের শহর। অবসর পেলে প্রায়ই সেখানে বেড়াতে যান তিনি। তবে প্লেনে চড়তে তিনি ভয় পান। জার্নির পুরো সময়টাই নাকি চোখ বন্ধ করে ঈশ্বরকে স্মরণ করেন।

লতা ইয়ায়ু দ্য পারফিউম’ নামে একটি সুগন্ধী লতার পছন্দের পরই তুমুল জনপ্রিয় হয়। ৭৮ রকমের গন্ধের মিশ্রণ রয়েছে এতে।

কেরিয়ারের শুরুতে কাজ পাননি লতা মুঙ্গেশকর। তখন ছিল নুর জাহান, শমশাদ বেগমদের সময়। তাদের কাছে লতার কণ্ঠ পাত্তাই পায়নি। সরু গলার দোহাই দিয়ে তাকে বলিউড থেকে একপ্রকার বের করে দেয়া হয়।

গাজরের হালুয়া, সি-ফুড, স্পাইসি ফুড তার পছন্দের। তবে সবচেয়ে ভালোবাসেন আম খেতে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: