অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪২ হিজরী

শাহরুখের মায়ের চরিত্র ফিরিয়ে দেন স্বরা

Print

বিনোদন ডেস্ক: বলিউডের মেধাবী নায়িকা স্বরা ভাস্কর। বাবার আপত্তি ও মায়ের সম্মতি সঙ্গে নিয়ে স্বরা পা রাখেন মুম্বাইয়ে। তবে বলিউডে মূল চরিত্র পেতে তাকে অনেক কাঠখড় পোহাতে হয়েছে। প্রথম দিকে স্বরাকে শুনতে হলো তিনি নায়িকা হওয়ার উপযুক্ত নন। বরং সহনায়িকার চরিত্রে চেষ্টা করতে পারেন। ইন্ডাস্ট্রিতে স্ট্রাগল করার প্রথম পর্বে পরিচালকের হাতে যৌন হেনস্তারও শিকার হন।দীর্ঘ চেষ্টার পর ২০০৯ সালে অভিনয় করেন ‘মাধোলাল কিপ ওয়াকিং’ ছবিতে। কিন্তু সেই ছবির কথা মনে আছে এমন দর্শক পাওয়ায় আজকাল দুষ্কর। দ্বিতীয় ছবি ‘নিয়তি’ মুক্তিই পায়নি।

সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘গুজারিশ’-এ ছোট একটি ভূমিকায় অভিনয় করলেও দর্শকমনে দাগ কাটতে পারেননি স্বরা। ২০১১ সালে ‘তনু ওয়েডস মনু’র পার্শ্ব নায়িকা হিসেবে নজর কাড়েন। সুপারহিট ছবিটি তার পায়ের নিচে শক্ত জমিন এনে দেয়। ‘রানঝানা’ ও ‘তনু ওয়েডস মনু রিটার্নস’-এ স্বরার কাজ প্রশংসিত হয়। এর পর ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ তে সালমানের বোনের ভূমিকায় অভিনয় করেন। শোনা যায়, অনেক অভিনেত্রী ফিরিয়ে দেওয়ার পর ওই চরিত্রে সুযোগ পান স্বরা। প্রতিষ্ঠিত নায়িকারা পর্দায় সালমানের বোন হতে চাননি। এই ছবি থেকে সালমানের সঙ্গে স্বরার বন্ধুত্ব তৈরি হয়। ভাইজানের বাড়ির অনুষ্ঠানেও তিনি ছিলেন নিয়মিত অতিথি। কিন্তু প্রথম সারির নায়িকা হওয়ার সুযোগ মেলেনি। তখন করেন ‘নীল বাটে সানাটা’ ও ‘অনারকলি অব আরা’র মতো সমান্তরাল ধারার দুই ছবি। অভিনেত্রী হিসেবে পরিচিতি পেলেও ছবি দুটি বক্স অফিসে ব্যর্থ হয়। এবার সাহসী অভিনেত্রীর ভাবমূর্তি নিয়ে ফেরেন সোনম কাপুরের ছবি ‘বীরা দি ওয়েডিং’-এ। স্বমেহন দৃশ্যে দেখা যায় তাকে। এতে তীব্র সমালোচিত হন স্বরা। এর পর ‘সুলতান’ ছবিতে অভিনয় করতে চেয়ে যোগাযোগ করেন যশরাজ ফিল্মসের সঙ্গে। কিন্তু বিনীতভাবে ফিরিয়ে দেন প্রযোজক আদিত্য চোপড়া, পরিবর্তে সুযোগ পান আনুশকা শর্মা। ধারণা করা হয়, ‘প্রেম রতন ধন পায়ো’ ছবিতে সালমানের বোনের চরিত্রে অভিনয় করায় এ প্রত্যাখ্যান। অন্য দিকে, স্বরাও ফিরিয়ে দেন ‘জিরো’-তে শাহরুখ খানের মায়ের ভূমিকায় অভিনয়ের প্রস্তাব। অভিনেত্রী ভাবতেও পারেননি দ্বিগুণ বয়সী শাহরুখের মায়ের চরিত্রে তাকে ভাবা হবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: