অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২০শে সফর, ১৪৪৩ হিজরী

সম্মাননা পাচ্ছেন দিলারা জামান

Print

বিনোদন প্রতিবেদক : এ দেশের টিভি নাটক ও চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য নতুন করে আবার সম্মাননা পেতে যাচ্ছেন গুণী অভিনেত্রী দিলারা জামান। অনলাইন সংবাদ মাধ্যম বিবার্তা তাকে স্বর্ণপদক দিতে যাচ্ছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিবার্তার সম্পাদক বাণী ইয়াসমিন হাসি। আগামী ৬ মার্চ বিকেল ৪টায় রাজধানীর শাহবাগের জাতীয় জাদুঘরের সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে দিলারা জামানের হাতে ‘বিবার্তা স্বর্ণপদক’ তুলে দেয়া হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পীকার ফজলে রাব্বি মিয়া, এমপি। বিশেষ অতিথি সাবেক পররাষ্ট্র মন্ত্রী ডা. দীপু মনি, এমপি। এই সম্মাননা পেতে যাওয়া প্রসঙ্গে দিলারা জামান বলেন, ‘আমি নোয়াখালীর সন্তান। রক্ষণশীল পরিবারে আমার জন্ম। এমন একটি পরিবারে সেই সময়ে জন্ম নিয়ে অনেক যুদ্ধ করে আমাকে অভিনয় করতে হয়েছে। শিক্ষকতার পাশাপাশি আমাকে অভিনয় করতে হয়েছে। দর্শকের ভালোবাসা পেয়েছি আমি সবসময়। এই ভালোবাসা নিয়েই আমি অভিনয়ের পথে এগিয়ে চলেছি। বিবার্তা পরিবার এবং এর সম্পাদক বাণী ইয়াসমিন হাসির প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ আমাকে এমন সম্মাননায় ভূষিত করার জন্য।’ উল্লেখ্য, দিলারা জামান একুশে পদকে ভূষিত হন ১৯৯২ সালে। মুরাদ পারভেজ পরিচালিত ‘চন্দ্রগ্রহণ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন এই অভিনেত্রী। ১৯৪৩ সালের ১৯ জুন দিলারা জামানের জন্ম। তার প্রথম লেখা ‘ইত্তেফাক’র কচিকাঁচা আসরের পাতায় ছাপা হয় ১৯৫৬ সালে। সেটি ছিলো ছোট্ট একটি আট লাইনের ছড়া। ছাপার অক্ষরে নিজের নাম ‘দিলারা আহমেদ লিলি’ দেখে তখন তার বেশ আনন্দ হয়েছিলো। সেই থেকে তার লেখালেখির অভ্যাসও রয়েছে। ১৯৫৭ সালে স্কুলে তিনি প্রথম নাটক করেন মঞ্চে। এটি ছিল শরৎচন্দ্রের ‘মামলার ফল’। ১৯৬৩ সালে দিলারা যখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েন, তখন পূর্বপাকিস্তানের ছাত্র ইউনিয়নের বার্ষিক সম্মেলনে বাংলা একাডেমির উন্মুক্ত মঞ্চে একাঙ্কিকায় অভিনয় করেছিলেন কাজী দিশু ও সাংবাদিক আ.ন.ম গোলাম মোস্তফার সঙ্গে। একই বছরে তিনি আলাউদ্দীন আল আজাদ রচিত ডাকসু’র নাটক ‘মায়াবি প্রহর’-এ অভিনয় করেন। এতে তাকে আব্দুল্লাহ আল মামুনের স্ত্রীর ভূমিকায় দেখা যায়। ১৯৬৬ সালে দিলারা প্রথম রেডিওতে নাটক করেন নাজমুল আলমের রচনা ও আতিকুল হক চৌধুরীর প্রযোজনায়। টেলিভিশনে তিনি প্রথম অভিনয় করেন ১৯৬৭ সালে খান জয়নুলের লেখা ‘পিনিস’ নাটকে। পরিচালক ছিলেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। হুমায়ূন আহমেদের নির্দেশনায় দিলারা প্রথম অভিনয় করেন ১৯৮৪ সালে ‘দিনের শেষে’ নাটকে। তার বিপরীতে ছিলেন গোলাম মুস্তাফা। এরপর হুমায়ূন আহমেদ রচিত ‘এইসব দিনরাত্রি’ ও ‘অয়োময়’ নাটকে অভিনয় করেন তিনি। দিলারা জামান অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র হচ্ছে ‘আগুনের পরশমণি’, ‘চন্দ্রকথা’, ‘মেঘলা আকাশ’, ‘মনপুরা’, ‘চন্দ্রগ্রহণ’, ‘হালদা’ ও ‘অপেক্ষা’। তার অভিনীত মুক্তি প্রতীক্ষিত ছবি হচ্ছে ‘আলতাবানু’ ও ‘পোস্টমাষ্টার ৭১’।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: