অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

সিসিইউতে আইভী

Print

নিজস্ব প্রতিবেদক : হঠাৎ অসুস্থ হয়ে ল্যাবএইড হাসপাতালের সিসিইউতে (কার্ডিয়াক কেয়ার ইউনিট) ভর্তি নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী। তাকে বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। তার চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয়েছে পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড। গত দুদিন আগে হকার উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে সাংসদ শামীম ওসমানের সঙ্গে সংঘর্ষ নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনার মধ্যেই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে ভর্তির পর নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এ.এফ.এম এহতেশামুল হক এই তথ্য নিশ্চিত করেন।
সিটি করপোরেশনের হকার উচ্ছেদ অভিযান নিয়ে গত মঙ্গলবার সংঘর্ষের পর আইভী-শামীম দুজনকেই ঢাকায় তলব করার কথা জানিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে নারায়ণগঞ্জ নগর ভবনে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন মেয়র আইভী। তাৎক্ষণিকভাবে অ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকায় পাঠানো হয়। মেয়রের ব্যক্তিগত সহকারী আবুল হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, কয়েকজন সাংবাদিকের সঙ্গে কথা বলছিলেন তিনি। এ সময় তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন। কথা বলতে পারছিলেন না। পরে বমি করা শুরু করেন।
নগর ভবনের মেডিকেল অফিসার গোলাম মোস্তফা তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে স্যালাইন পুশ করেন। চিকিৎসক বলেছেন মেয়রের রক্তচাপ কমে গেছে। এই অবস্থায় তাকে ল্যাবএইডে পাঠানো হয়। বিকাল সোয়া ৫টার দিকে ল্যাবএইডে ভর্তি করার পর হাসপাতালটির জনসংযোগ কর্মকর্তা সাইফুর রহমান লেলিন বলেন, কার্ডিওলজিস্ট বরেন চক্রবর্তীর দায়িত্বে সিসিইউতে (কার্ডিয়াক কেয়ার ইউনিট) ভর্তি করার পর সিটি স্ক্যানসহ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। চিকিৎসার জন্য অধ্যাপক আবদুস জাহেদসহ পাঁচ সদস্যের বোর্ড গঠন করা হয়েছে।
হাসপাতালে উপস্থিত সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এহতেশাম সন্ধ্যা ৭টার দিকে চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলার পর বলেন, তিনি (আইভী) এখন শঙ্কামুক্ত, তবে রেস্টে থাকতে হবে। ডাক্তাররা বলেছেন, রেস্টে থাকাই এখন বড়।
আইভীর কী সমস্যা হয়েছিল- জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইসিজি রিপোর্ট ভালো, সমস্যা নেই। তবে সিটি স্ক্যান রিপোর্ট এখনও পাওয়া যায়নি। ডাক্তাররা এখন পর্যবেক্ষণে রেখেছেন। সব রিপোর্ট পাওয়ার আগে কিছু বলছেন না।
দেড় যুগ ধরে নারায়ণগঞ্জে জনপ্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করে আসা আইভী নিজেও এমবিবিএস ডিগ্রিধারী।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.