অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৫ই রবিউস-সানি, ১৪৪২ হিজরী

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলছে দুর্গাপূজা

Print

স্টাফ রিপোর্টার : শারদীয় দুর্গাপূজা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম বড় উৎসব। তবে করোনা মহামারির কারণে এবারের পূজায় আগের আমেজ নেই। এছাড়াও বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপটি নিম্নচাপে পরিণত হওয়ায় দিনভর বৃষ্টি তো আছেই। তবুও বৃষ্টি মাথায় নিয়ে মণ্ডপগুলোতে দেবী দুর্গার আরাধনায় আসছেন অনেকেই।

ঢাকায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে পূজা-অর্চনা আয়োজিত হয়েছে। ডিএমপির নির্দেশনা অনুযায়ী সন্ধ্যা আরতির পর থেকে মণ্ডপগুলোতে সাধারণ দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেয়া হচ্ছে না, শুধুমাত্র মন্ডপের দায়িত্বে নিয়োজিতরাই মণ্ডপে প্রবেশ করতে পারছেন।

ওদিকে ঢাকার বাইরেও দুর্গাপূজা উপলক্ষে মণ্ডপে মণ্ডপে পূজো দেয়া চলছে। বগুরায় প্রতি বছরের ন্যায় এবারও ৬৩১টি পূজামণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। তবে মন্দির ও মণ্ডপের বাহিরে কিছুকিছু স্থানে মেলাও বসেছে।

জানা গেছে, প্রতি বছরের ন্যায় এবার বগুড়ায় ৬৩১ টি পূজামণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। শান্তিপূর্ণ ও সুষ্ঠুভাবে পূজা উদযাপনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। নিরাপত্তার ব্যবস্থাসহ অনুদানও প্রদান করা হয়েছে।

ভক্তরা বলছেন, একে তো করোনা তার উপর বৃষ্টি, সে কারণে পরিবারের সবাই একসাথে পূজো উদযাপনে বের হতে পারছেন না। সময় ভাগাভাগি করে বের হতে হচ্ছে। বগুড়া জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দীলিপ বাবু জানান, দফায় দফায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে প্রশাসক ও পুলিশ প্রশাসনের সাথে তাদের মিটিং হয়েছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে কেন্দ্রীয় ভাবে তাদের ২৬টি দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য মণ্ডপে মণ্ডপে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা, সামাজিক দূরত্ব বজায় নিশ্চিত করা, ভক্ত বা দর্শনার্থীদের মণ্ডপে বেশি সময় অতিবাহিত না করা, আলোকসজ্জা থেকে বিরত থাকা, কোন প্রকার মেলা না বসানো, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন না করা, কোন প্রকার সাউন্ড বক্স বা গান বাজনা না করা।

বগুড়া জেলা প্রশাসক মো. জিয়াউল হক জানান, সকল দর্শনার্থীদের যথাযথ মাস্ক ব্যবহার এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে মন্দিরে প্রবেশ করতে হবে। এছাড়াও বগুড়া পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম(বার) স্বাস্থ্যবিধি মেনে এবারের পূজায় সাবধান হয়ে চলার আহ্বান জানিয়েছেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: