অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১০ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪৩ হিজরী

‘হত্যা নয়, অনুতপ্ত দিবস পালন করুন’

Print

দৈনিক চিত্র রিপোর্ট: আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন ‘গণতন্ত্র হত্যা’ দিবস নয়, ৫ জানুয়ারি ‘অনুতপ্ত দিবস’ পালন করুন। বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি এ মন্তব্য করেন। দলটিকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেন, এবারও যদি বিএনপি আন্দোলনের নামে নাশকতা ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করে তবে তাদের জনগণ ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী আরও কঠিন শিক্ষা দেবে।

রোববার (৩ জানুয়ারি) বিকেলে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে হানিফ এ হুঁশিয়ারি দেন। ৫ জানুয়ারি ‘গণতন্ত্রের বিজয় দিবস’ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত যৌথসভা শেষে এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে এ যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়।

হানিফ বলেন, বিএনপি কিসের জন্য কর্মসূচি দিয়েছে? গণতন্ত্র হত্যা দিবস পালন করতে? তারা বলে, জনগণের ভোটাধিকার হরণ করা হয়েছে। আসলে তারাই তো জনগণের ভোটাধিকার হরণ করার জন্য ৫ জানুয়ারির নির্বাচন প্রতিহত করতে জ্বালাও-পোড়াও করেছে, মানুষ হত্যা করেছে, নাশকতা চালিয়েছে। তাদের উচিত এই ভুল রাজনীতির জন্য অনুতপ্ত হওয়া।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, নির্বাচন বর্জন সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। কিন্তু নির্বাচন প্রতিহত করা, জ্বালাও-পোড়াও-মানুষ হত্যা করার অধিকার বিএনপির নেই। তাদের উচিত ৫ জানুয়ারি ‘অনুতপ্ত দিবস’ পালন করা।

বিএনিপর সমাবেশ প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, শুনেছি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ওইদিন কাউকে সমাবেশের অনুমতি দেবে না ডিএমপি। যদি তা না দেয় তবে আমরা কেন্দ্রীয়ভাবে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ করবো।

আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে এই সমাবেশের অনুমতি কবে চাওয়া হয়েছে? এমন প্রশ্নের জবাবে হানিফ জানান, তারা ৩১ ডিসেম্বরেই অনুমতি চেয়েছেন।

বিএনপিও দাবি করেছে, সমাবেশের জন্য তারা ৩১ ডিসেম্বর অনুমতি চেয়েছে। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে আওয়ামী লীগের এ যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বলেন, এটা মিথ্যা কথা, তারা গতকাল (শনিবার) অনুমতি চেয়েছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: