অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ১৫ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১২ই সফর, ১৪৪২ হিজরী

হাত ধোয়া শেখাবে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল, খরচ ৪০ কোটি টাকা!

Print

অনলাইন ডেস্ক : গরীব মানুষদের হাত ধোয়া শেখাবে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল। আর তাতে খরচ ধরা হয়েছে ৪০ কোটি টাকা। ৫ বছরে মাত্র ৯ জন কর্মীর বেতন ধরা হয়েছে ৩ কোটি টাকা, সেইসাথে আচেহ বিদেশ ভ্রমণ, সেখানেও খরচ ৫ কোটি টাকা। এমনই অস্বাভাবিক খরচের বিবরণ দেয়া হয়েছে ‘গ্রামীণ পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন এবং স্বাস্থ্যবিধি’ প্রকল্পের ডিপিপি’তে। এই প্রকল্পের মোট ব্যয় ১৮৮৩ হাজার কোটি টাকার প্রায় পুরোটাই দিচ্ছে বিশ্ব ব্যাংক।

দেশের অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এ ধরণের অনিয়ম যে শুধু দেশের ক্ষতি করে তা নয়, বরং ক্ষতি হয় সুনামেরও। পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, প্রচলিত আইনের ফাঁক গলেই এসব অনিয়মের অভিযুক্তরা পার পেয়ে যাচ্ছেন।

দেশের বাজারের হিসেবে, ভালো মানের একটি হাত ধোয়ার বেসিনের সর্বোচ্চ মূল্য ৬-১২ হাজার টাকা। একটি পানির পাম্প সহ বেসিনের সর্বোচ্চ দাম হতে পারে ৩৫ হাজার টাকা। অথচ সাড়ে ৩ ফুট লম্বা একটি স্টেশন তৈরিতে ২ লাখ টাকা প্রস্তাব করেছে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর। এরকম পানির পাম্পসহ ১৪২৫টি স্টেশন তৈরিতে মোট খরচ ধরা হয়েছে সাড়ে ২৮ কোটি টাকা। আবার ডিপিপিতে আচরণ পরিবর্তন এবং হাত ধোয়া শেখাতে ৪০ কোটি টাকা খরচ ধরা হয়েছে। পরামর্শকদের পেছনে ২৭ কোটি, আর নিজেদের সক্ষমতা বাড়াতে ব্যয় ধরা হয়েছে ৭ কোটি টাকা।

এই ব্যয়ের ব্যাপারে মানবসম্পদ উন্নয়নে গ্রামীণ পানি সরবরাহ, এবং স্বাস্থ্যবিধি প্রকল্প পরিচালক আনোয়ার ইউসুফ বলেন, একনেক তো আছেই। আমরা যেটা দিলাম সেটাই তো পাস হয়ে যাবে না। অনেক কিছু মিলিয়েই তো টাকাটা।

বিশ্বব্যাংক সাবেক প্রধান অর্থনীতিবিদ ড. জাহিদ হোসেন বলেন, নিয়ন্ত্রণে যদি ঘাটতি থাকে, তাহলে বিশ্বব্যাংক এসে এগুলো ঠিক করে দেবে, এটা আসলে বাস্তবসম্মত না। মাস কয়েক আগে সারাদেশে নিরাপদ পানি সরবরাহের জন্য সাড়ে ৮ হাজার কোটি টাকার একই ধরনের একটি প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে একনেক। শুধু গোপালগঞ্জের জন্য নিরাপদ পানি ও স্যানিটেশন সুবিধা নিশ্চিতে আলাদা একটি প্রকল্প প্রস্তাব রয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে।

সূত্র : সময় টিভি




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: