অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

হাথুরুর শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে জিম্বাবুয়ের চমক

Print

স্পোর্টস রিপোর্টার : চমক দেখিয়েছে জিম্বাবুয়ে। চন্ডিকা হাতুরুসিংহকে মাথানত করেই মাঠ ত্যাগ করতে বাধ্য করলো জিম্বাবুয়ে। তাও আবার বাংলাদেশের মাটিতে। নিঃসন্দেহে বাংলাদেশের মানুষ এতে মহাখুশি। কারণ বাংলাদেশের সঙ্গে অনেকটা প্রতারণা করেই হাতুরুসিংহে শ্রীলঙ্কার কোচ হয়েছেন। আর শ্রীলঙ্কার হয়ে তার প্রথম অ্যাসাইনমেন্টই ফেল। আগামী শুক্রবার হাতুরুর দ্বিতীয় ম্যাচ স্বাগতিক বাংলাদেশের সঙ্গে। বুধবার মিরপুর স্টেডিয়ামে ত্রিদেশীয় সিরিজের ম্যাচে অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল জিম্বাবুয়ের কাছে ১২ রানে হেরেছে শ্রীলঙ্কা। ব্যাট করার আমন্ত্রণ পেয়ে জিম্বাবুয়ে ৬ উইকেটে ৫০ ওভার খেলে ২৯০ রানের পাহাড় ছুড়ে দেয় শ্রীলঙ্কাকে। জবাবে শ্রীলঙ্কা ১১ বল হাতে রেখে সব উইকেট হারিয়ে ২৭৮ রান সংগ্রহ করে। সেরা নৈপুণ্যের জন্য ম্যাচসেরা হয়েছেন জয়ী দলের সেকান্দার রাজা।
ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরুর পূর্বে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশকেই ফেভারিট ধরে নেয়া হয়েছিল। তবে জিম্বাবুয়েও বলে রেখেছিল তারাও শিরোপার দাবিদার। তার প্রমাণ দিলো শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে। বাংলাদেশ ও জিম্বাবুয়ে একটি করে ম্যাচ জিতেছে।
মিরপুর স্টেডিয়ামের শততম ওয়ানডেতে বাংলাদেশ নেই, সেই আক্ষেপ-আফসোসই এখন গুঞ্জরিত হচ্ছে দেশের ক্রিকেট অঙ্গনে। খোদ বিসিবি সভাপতিও বলেছেন, শততম ম্যাচে বাংলাদেশ থাকলেই ব্যাপারটি ভালো হতো। তবে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের শততম ম্যাচটি খুব ভালোমতোই স্মরণীয় করে রাখলেন শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা। উপহার দিলেন জমজমাট এক ম্যাচ। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর শেষ পর্যন্ত জিম্বাবুয়ে পেয়েছে ১২ রানের জয়। বাংলাদেশের বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হেরেছিল জিম্বাবুয়ে। রীতিমতো অসহায় আত্মসমর্পণই করতে হয়েছিল মাসাকাদজা-সিকান্দার রাজাদের। তাই অনেকেই হয়তো আজকের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার সহজ জয়ই অবধারিত বলে ধরে নিয়েছিলেন। কিন্তু তাদের অবাক করে দিয়েছেন জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটাররা।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.