অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ৬ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জিলহজ্জ, ১৪৪০ হিজরী

১৭০ রানে অল-আউট জিম্বাবুয়ে

Print

স্পোর্টস রিপোর্টার : টাইগার বোলারদের দাপটে এক ওভার বাকি থাকতেই থামতে হলো জিম্বাবুয়ে। ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে ১৭০ রানে অলআউট হলো সফরকারীরা। হিথ স্ট্রিকের শিষ্যদের মধ্যে সর্বোচ্চ ৫২ রান করেছেন সিকান্দার রাজা। পিটার মুর দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৩ রান। বল হাতে ৩ উইকেট নিয়েছেন সাকিব, ২টি করে নিয়েছেন মুস্তাফিজ আর রুবেল হোসেন।
মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম ম্যাচে টসে হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে শুরুতেই বিপদে পড়ে জিম্বাবুয়ে। প্রথম ওভারেই জোড়া আঘাত হানেন বিশ্বসেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ওভারের প্রথম বলটি এগিয়ে এসে মারতে চেয়েছিলেন সলোমন মির (০)। কিন্তু টাইমিং মিস হলে মুশফিকুর রহিমের গøাভসে বন্দি হয় বল। আর স্টাম্পিং করার সুযোগটি মিস করেননি মুশি। এক বল পরেই সাকিবের ঘূর্ণি বুঝতে না পেরে ক্যাচ তুলে দেন এরভিন (০)। মিড উইকেটে দাঁড়ানো সাব্বির রহমান সহজেই সেটি তালুবন্দি করেন। জিম্বাবুয়ের ইনিংসে তৃতীয় আঘাত হানেন অধিনায়ক মাশরাফি।
এরপর সিকান্দার রাজাকে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেন ব্রেন্ডন টেইলর। কিন্তু ‘কাটার মাস্টার’ মুস্তাফিজুর রহমানের বলে মুশফিকের গøাভসবন্দি হয়ে ২৪ রানেই থামে তার ইনিংস। এরপর ম্যালকম ওয়েলারকে (১৩) সাব্বির রহমানের তালুবন্দি করে ক্যারিয়ারের তৃতীয় উইকেট তুলে নেন সানজামুল।
ধ্বংসস্তুপে দাঁড়িয়ে একাই লড়াই করছিলেন পাকিস্তানি বংশোদ্ভুত সিকান্দার রাজা। নাসিরকে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৯২ বলে ২টি করে চার ও ছক্কায় তুলে নেন ক্যারিয়ারের নবম হাফ সেঞ্চুরি। সেই নাসিরের ফিরতি ওভারেই ৫২ রানে রান-আউট হয়ে যান রাজা। আবারও মঞ্চে আবির্ভাব ঘটে সাকিবের। জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক গ্রায়েম ক্রেমারকে (১২) রুবেলের তালুবন্দি করে তৃতীয় শিকার ধরেন তিনি।
৪৮তম ওভারে রুবেলের জোড়া আঘাতেই কার্যত শেষ হয়ে যায় জিম্বাবুয়ের ইনিংস। পরপর দুই বলে রুবেল ফিরিয়ে দেন পিটার মুর (৩৩) আর চাতারাকে (০)। হ্যাটট্রিকের সুযোগটি কাজে লাগাতে পারেননি এই গতি তারকা। বেøসিং মুজরাবানিকে (১) বোল্ড করে শেষ পেরেকটা ঠুকে দেন মুস্তাফিজুর রহমান।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.