অনলাইন নিউজপেপার সাইট ঢাকা, ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জিলহজ্জ, ১৪৪২ হিজরী

৩ শিশুকে পুড়িয়ে হত্যা করল পাষণ্ড চাচা

Print

ঝিনাইদহ থেকে সংবাদদাতা : পারিবারিক কলহের জের ধরে ঝিনাইদহে দুই ভাতিজা ও এক ভাগিনাকে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ আটক করেছে দুই শিশুর চাচা ইকবাল হোসেনকে।

রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ঝিনাইদহের শৈলকুপা শহরের কবিরপুরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো- কবিরপুর গ্রামের বাসিন্দা দেলোয়ার হোসেনের ছেলে শাফিন (১১) ও আমিন (৮) এবং বড়বোনের ছেলে মাহিন (১৪)।

ঘাতক ইকবাল হোসেন কবিরপুর গ্রামের সার ব্যবসায়ী গোলাম নবীর ছেলে। তিনি সিঙ্গাপুরে থাকতেন। সম্প্রতি তিনি দেশে ফিরে এসেছেন। তার সহোদর ভাই দেলোয়ার হোসেন শৈলকুপা পাইলট স্কুলের শিক্ষক।

পারিবারিব অর্থ-সম্পদ নিয়ে প্রবাসী ইকবাল হোসেন ও তার ছোট ভাই দেলোয়ার হোসেনের মধ্যে দ্বন্দ্ব চলে আসছিল। এর জের ধরে রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ইকবাল তার ছোট ভাইয়ের দুই ছেলে শাফিন ও আমিন এবং জেসমিন নামে তার বড়বোনের ছেলে মাহিনকে জানালার গ্রিলের সঙ্গে হাত ও মুখ বেঁধে বেধড়ক মারপিট করে। পরে তাদের গায়ে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেন। এরপর বাইরে থেকে তালাবদ্ধ করে দেয়। এ সময় ঘরে থাকা গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরিত হয়ে আগুন লেগে যায়।

খবর পেয়ে শৈলকুপা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় অগ্নিদগ্ধ তিন শিশুকে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিশুদের ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে পাঠান। সেখান তিন শিশুর মৃত্যু হয়।

এদিকে, নির্মমভাবে তিন নিহতের খবর পেয়ে ঝিনাইদহের সহকারী পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) গোনীনাথ কান্জিলাল, শৈলকুপা উপজেলা চেয়ারম্যান শিকদার মোশাররফ হোসেন সোনা, পৌর মেয়র কাজী আশরাফুল আজম ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ দিদারুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

শৈলকুপা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) এমদাদ হোসেন ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় তিন শিশু নিহত হয়েছে। ঘাতক ইকবাল হোসেনকে আটক করা হয়েছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.

%d bloggers like this: